১০ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৪শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

জীবনমৃত্যুর সন্ধিক্ষণে বীরমুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ

একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধের বিজয়ী বীরসেনানী সীতাকুণ্ড পৌরসভার সাবেক মেয়র আবুল কালাম আজাদ এখন জীবনমৃত্যুর সন্ধিক্ষণে শ্বাসরুদ্ধকর সময় অতিবাহিত করছেন।

নিউইয়র্কের বাফালো’র ইআরআই মেডিকেল হাসপাতালে ফুসফুস ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসকের নিবিড় তত্ত্বাবধানে আছেন তিনি। নানান পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে তাঁর। আমেরিকায় বসবাসরত চিকিৎসকমেয়ে ও জামাতা তাঁকে দেখভাল করছেন। দেশমাতৃকার স্বাধীকার-স্বাধীনতা আন্দোলন, একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধসহ প্রতিটি আন্দোলন-সংগ্রামে রয়েছে তাঁর প্রবাদতূল্য অবদান। সাবেক চট্টগ্রাম জেলা মুক্তিযোদ্ধা কামান্ডার আবুল কালাম ষাটের দশকে ছাত্রলীগের রাজপথকাঁপানো তুখোড় ছাত্রনেতা ছিলেন। স্বাধীনতার পর জাসদ-রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হয়ে সমাজবদলের রাজনীতির চর্চা করেন। তাঁর রাজনৈতিক সতীর্থরা অনেকে মন্ত্রী-এমপি হলেও রাজনীতির হিসেব-নিকাশের গরমিলের কারণে তাঁর ভাগ্য সুপ্রসন্ন  হয়নি। একপর্যায়ে বিএনপি’র রাজনীতির স্রোতে সামিল হয়ে  সীতাকুণ্ড পৌরসভা বিএনপির সভাপতি ও সীতাকুণ্ড পৌরসভার  নির্বাচনে তিনি মেয়র হন। সীতাকুণ্ড পৌরসভার রাস্তাঘাটসহ অবকাঠামোগত উন্নয়নে তিনি বিশাল অবদান রাখেন। পরবর্তীতে নানা মামলা-মোকাদ্দমায় জড়িয়ে প্রতিকূল রাজনৈতিক পরিবেশের কারণে তিনি আমেরিকায় পাড়ি জমান।

চাটগাঁর বাণী’র নিউইয়র্ক প্রতিনিধি ঝুলন সেন জানান, লাঙ্গস্ ক্যান্সারে আক্রান্ত সীতাকুণ্ডের সাবেক পৌরমেয়র বীরমুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদের শারীরিক অবস্থা খুবএকটা ভালো নয়। বিভিন্ন পরীক্ষা করা হচ্ছে। কেমোথেরাপি দেয়া হতে পারে। তিনি সীতাকুণ্ডবাসীসহ সকলের দো­য়া ও আশির্বাদ কামনা করছেন।