১০ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৪শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ডিভোর্স ছাড়া অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করার মামলায় স্ত্রী তামিমা সুলতানা তাম্মি ও শাশুড়ি সুমি আক্তারসহ জামিন পেলেন ক্রিকেটার নাসির হোসেন। সোমবার ( ২০ ডিসেম্বর) ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্যমহানগর হাকিম তোফাজ্জল হোসেনের আদালতে  জামিন বাড়ানোর আবেদন করেন আসামিরা। বেলা পৌনে ১২টার দিকে আবেদনের ওপর শুনানি শেষে জামিন বহাল রাখেন বিচারক।

এর আগে ৩১ অক্টোবর ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জসীমের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে ১০ হাজার টাকার মুচলেকায় জামিন পান আসামিরা।

ইসলামি শরিয়াহ অনুযায়ী ক্রিকেটার নাসির ও এয়ার হোস্টেজ তামিমার বিয়ে বৈধ উপায়ে হয়নি বলে গত ৩০ সেপ্টেম্বর আদালতে প্রতিবেদন জমা দেয় পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

প্রতিবেদনে বলা হয়, তামিমার আগের স্বামী রাকিব হাসানকে ডিভোর্স দেয়াসংক্রান্ত কাগজপত্র জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছে। নাসিরকে বিয়ের আগে রাকিবকে ডিভোর্স দেননি তামিমা। তাই নাসির-তামিমার বিয়ে আইনগতভাবে বৈধ হয়নি।

ইসলামি শরিয়াহ অনুযায়ী তালাকের কাগজ ছাড়া অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করার অভিযোগে চলতি বছর ২৪ ফেব্রুয়ারি নাসির ও তার স্ত্রী তামিমার বিরুদ্ধে মামলাটি করেন রাকিব।

মামলায় তাদের বিরুদ্ধে বিয়ের তথ্য গোপন করে অন্যত্র বিয়ে, অন্যের স্ত্রীকে প্রলুব্ধ করে প্রতারণার মাধ্যমে বিয়ে, ব্যভিচার ও মানহানির অভিযোগ আনা হয়। আদালত পিবিআইকে মামলার বিষয়ে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমার নির্দেশ দেয়।

চলতি বছরের ভালোবাসা দিবসে জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে প্রেমিকা তামিমাকে বিয়ে করেন নাসির। তাদের দাবি, আইন মেনে ইসলামি শরিয়াহ অনুযায়ী বিয়ে করেছেন তারা।