২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ৮ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

স্বপ্নের পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ নানা প্রতিকূলতার মধ্যেও দ্রুত এগিয়ে চলছে । কাজ প্রায় শেষের পথে। এখন চলছে সেতুর সড়কপথে পিচঢালাইয়ের (কার্পেটিং) কাজ। সেতুটির ৪০ নম্বর খুঁটির কাছে সকাল থেকেই পিচ ঢালাই শুরু হয়েছে। সকাল থেকেই শুরু হয়েছে এ ঢালাইয়ের কাজ। এই কার্পেটিংয়ের কাজ করছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি)।

বুধবার (১০ নভেম্বর) সকাল ৯টা ৪০ মিনিট থেকে এ কাজ শুরু হয়। সকাল থেকেই এ কাজ মনিটর করছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এরই মাঝে মূল সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে ৯৫ শতাংশ। প্রায় ৮৯ শতাংশ প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি হয়েছে। আর নদী শাসন কাজের অগ্রগতি হয়েছে ৮৬ শতাংশ। মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তে সংযোগ সড়কের কাজ শতভাগ শেষ হয়েছে।

আশা করা যাচ্ছে, আগামী জুন মাসের আগেই সেতু যানবাহন চলাচলের জন্য সম্পূর্ণ উপযোগি হয়ে যাবে। এরপর পারাপার হবে স্বপ্ন, উন্মোচিত হবে অমিত সম্ভাবনার দ্বার। চলাচল হবে গতিময়। বাড়বে প্রবৃদ্ধি, আসবে সমৃদ্ধি।

সেতুটির দায়িত্বশীল এক নির্বাহী প্রকৌশলী জানান, ৪৩০ মিটার এলাকা পানিপ্রতিরোধী প্রলেপ দিয়ে পিচ ঢালাই চলছে। বুধবার কাজের প্রথম দিনে এই ৪৩০ মিটার এলাকায় কার্পেটিং করা সম্ভব না হলেও কমপক্ষে ১০০ মিটার এলাকায় কার্পেটিং করা হবে। পানিপ্রতিরোধী প্রলেপের ওপর আরো দুই স্তরে ১০০ মিলিমিটার পুরুত্বে পিচ ঢালাই করা হবে। তবে প্রথম দফায় ৬০ মিলিমিটার পুরুত্বের লেয়ার এবং দ্বিতীয় দফায় বাকি ৪০ মিলিমিটার পুরুত্বের দ্বিতীয় লেয়ার দেওয়া হবে।

পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষ সূত্র থেকে জানা যায়, গত বছরের ১০ ডিসেম্বর সেতুর শেষ স্প্যান বসানো হয়। এর মাধ্যমে দৃশ্যমান হয় ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটারের পদ্মা সেতু। বিশ্বমানের এই কার্পেটিংয়ের কাজ ঘিরে পদ্মা সেতু এলাকায় উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। সেতুর জাজিরা প্রান্তে কার্পেটিংয়ের জন্য যাবতীয় মালামাল ও উপকরণ প্রস্তুত করে চলছে কাজ।

আর পড়ুন:   দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ মঙ্গলবার থেকে

কার্পেটিং ছাড়াও পদ্মা সেতুর প্যারাপেট ওয়াল ও ডিভাইডারেও ধুম কাজ চলছে। চলছে নদী শাসনের কাজও। আর নীচতলার পূর্ব পাশে গ্যাস লাইন স্থাপনের কাজও পুরোদমে চলছে। জাজিরা প্রান্ত থেকে গ্যাস লাইনের কাজ শুরু করার পর এখন দ্রুত কাজ শেষ করতে মাওয়া প্রান্ত থেকেও গ্যাস লাইন স্থাপনের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে। সেতুর নীচতলার পূর্বপাশ দিয়ে গ্যাস লাইন আর পশ্চিম পাশে ওয়াকওয়ে তৈরি করা হচ্ছে। পদ্মা সেতুকে যান চলাচলে উপোযোগী করার ক্ষেত্রে বাকি ছিল পিচ ঢালাইয়ের কাজ। আগামী বছরের জুনের আগেই পদ্মা সেতুর কাজ সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।