প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন আরও ২৩১ জন। এ নিয়ে আজ পর্যন্ত দেশে করোনায় মারা গেলেন ১৮ হাজার ১২৫ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় অ্যান্টিজেনসহ ৪৫ হাজার ১২টি নমুনা পরীক্ষা করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন আরও ১৩ হাজার ৩২১ জন। দৈনিক শনাক্তের গড় ২৯ দশমিক ৫৯। এ পর্যন্ত দেশে করোনা আক্রান্ত সংখ্যা দাঁড়ালো ১১ লাখ, ১৭ হাজার ৩১০ জন।

সোমবার (১৯ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সেরে উঠেছেন ৯ হাজার ৩৩৫ জন। শনাক্তের বিপরীতে সুস্থতার হার ৮৪ দশমিক ২৫। আর দেশে আজ পর্যন্ত ​শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৫৩। এদিন মৃত ব্যক্তির মধ্যে ১৩৬ জন পুরুষ ও ৯৫ জন নারী রয়েছেন।

বয়স বিবেচনায় এদিন ১১ থেকে ২০ বছরের ১ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের ৬ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের ৯ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের ৩৩ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের ৪৩ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের ৭৪ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের ৪৪ জন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের ১৭ জন, ৯১ থেকে ১০০ বছরের ৪ জন মারা গেছেন।

মৃতদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ১৬৭ জন, বেসরকারি হাসপাতালে ৪৬ জন এবং বাড়িতে ১৮ জন মারা গেছেন।

বিভাগ বিবেচনায় এদিন ঢাকা বিভাগের ৭৩ জন, চট্টগ্রামের ৪৩ জন, রাজশাহীর ১৬ জন, খুলনার ৫৭ জন, বরিশালে ৬ জন, সিলেটে ৮ জন, রংপুরে ১৭ জন এবং ময়মনসিংহে ১১ জন মারা গেছেন।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গতবছর ৮ মার্চ; প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ব্যাপক বিস্তারের মধ্যে গত ৯ জুলাই দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১০ লাখ পেরিয়ে যায়, আর ১৪ জুলাই মোট মৃত্যু ছাড়ায় ১৭ হাজার।

আর পড়ুন:   আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতা তারেক সোলেমান সেলিম আর নেই

বিশ্বে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ইতিমধ্যে ১৯ কোটি ১৩ লাখ ছাড়িয়েছে। আর এ মহামারীতে ৪১ লাখ ৮ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে ।