চট্টগ্রাম- ৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব দিদারুল আলম বলেছেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসে সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশও মারাত্মকভাবে আক্রান্ত। এটি নিয়ন্ত্রণে সরকারের বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হয়েছে। সর্বশেষ সরকার মানুষের জীবন রক্ষায় করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে লকডাউন দিয়েছে। সরকারও চায় না দেশে লকডাউন চলুক। অর্থনৈতিক মেরুদণ্ড ঠিক রেখে সরকার বাংলাদেশকে আর্থিক ক্ষতি থেকে যেমন রক্ষা করছে, তেমনি লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষগুলোকে নানাভাবে সহায়তা দিয়ে পাশে থাকছে। নগদ অর্থ,পর্যাপ্ত পরিমাণে খাদ্য সহায়তা, নিত্যপণ্য বিতরণ অব্যাহত রাখছে।

তিনি রবিবার (১১জুলাই)  বিকেলে চট্টগ্রাম নগরের আকবরশাহ থানাধীন ৯ নম্বর উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড সচেতন নাগরিক সমাজের পক্ষ থেকে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণকালে এসব কথা বলেন। এ সরকারের আমলে কেউই অভুক্ত থাকবে না উল্লেখ করে এমপি দিদার   আরো বলেন,আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতা-কর্মী নিজ নিজ এলাকায় কষ্টে থাকা মানুষগুলোর পাশে আছে, তাদের মুখ থেকে যেনো হাসি বিলীন হয়ে না যায় সেই চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।

চলমান লকডাউনে কর্মহীন হয়ে পড়া ওয়ার্ডের দুস্থ, হতদরিদ্র এবং খেটে খাওয়া প্রায় শতাধিক বাছাইকৃত পরিবারের মাঝে এসব সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

এই উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম-৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব দিদারুল আলম এমপি।   বিশেষ অতিথি ছিলেন উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক আলহাজ্ব সৈয়দ সরওয়ার মোরশেদ কচি।

সচেতন নাগরিক সমাজের আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল জব্বারের সভাপতিত্বে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কর্মসূচি অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সদস্যসচিব মো. কামাল উদ্দিন পারভেজ।

এতে আরো উপস্থিত ছিলেন উত্তর পাহাড়তলী সচেতন নাগরিক সমাজের যুগ্ম আহবায়ক শহিদ উল্লাহ ভূঁইয়া, এম এ আজিজ, জামাল উদ্দিন তারেক, মো. আলী বাবলু, জাতীয় শ্রমিক লীগ আকবরশাহ থানা শাখার সভাপতি মো. জমির উদ্দিন মাসুদ, বেলাল, নাছির, রহিম, হারুন যুগ্ম সচিব আবদুল ওয়াজেদ খান রাজীব, হুমায়ুন, মারুফ, পাভেল, মীর আহম্মদ খোকন, ইকবাল রাজ, আসিফ, মেহেদী, রিপাত, সিফাত, মাহিদ প্রমুখ।