নগরীর চন্দনপুরাস্থ চট্টগ্রাম নগর জামায়াতে ইসলামীর অফিস সংলগ্ন চাক্তাই খাল থেকে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (চউক)’র জলাবদ্ধতা নিরসনের লক্ষ্যে নেয়া মেগা প্রকল্পের অধীনে আবর্জনা অপসারণ করে গত চারদিন ধরে রাস্তার উপর স্তুপ করে রাখা হয়েছে। এ স্থানটি ডিসি রোড ও সিরাজদৌল্লা রোডের সংযোগ স্থল। এটি নগরীর রাজপথের প্রবেশ পথ। অথচ গত চারদিন যাবত এভাবে রাস্তা দখল করে খালের ময়লা আবর্জনা স্তুপ করে রাখায় একদিকে জন চলাচলের পথ সঙ্কুচিত হয়েছে অপরদিকে এসব আবর্জনার দুর্গন্ধে ডিসি রোড ও চন্দপুরার আবাসিক বাসিন্দাদের ঘরে থাকা দায় হয়ে পড়েছে। এ দুই এলাকার বাসিন্দাদের এসব আবর্জনার কারণে ঘরের দরজা জানালা বন্ধ করে থাকতে হচ্ছে। এসব আবর্জনা আজ বৃহস্পতিবার (১০জুন) এর মধ্যে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের মেগা প্রকল্পের কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা ও ঠিকাদারদের অপসারণের ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন ১৭ নম্বর পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের উপ প্রচার সম্পাদক মোহাম্মদ শহিদুল আলম। তিনি আজ এক বিবৃতিতে বলেন গত চারদিন যাবত চাক্তাই খালের ময়লা তুলে সড়কের উপর ফেলে রাখা হয়েছে। এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নগরবাসী চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ও স্থানীয় কাউন্সিলরের সমালোচনা করছে। কারণ স্তুপি করা আবর্জনায় সড়কে জন ও যান চলাচল যেমন সঙ্কুচিত হয়েছে তেমনি দুর্গন্ধ ও নোংরা পানির কারণে পথচারিও আশপাশের বাসিন্দাদের ঘরে থাকা দায় হয়ে পড়েছে। শহিদুল আলম তাই নাগরিক দুর্ভোগ লাঘবে সিডিএ চেয়ারম্যান ও তাদের জলাবদ্ধতা মেগা প্রকল্পের সংশ্লিষ্টদের সহায়তা কামনা করছেন। তিনি বলেন, এ ধরনের গাফেলতি মেনে নেয়া যায় না।