একসঙ্গে ১০ সন্তান প্রসব করে বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকান এক নারী । সোমবার রাতে দেশটির প্রশাসনিক রাজধানী প্রিটোরিয়ার একটি হাসপাতালে গোসিয়াম থমারা সিথোল নামে ৩৭ বছর বয়সী কৃষ্ণাঙ্গ এ নারী একসঙ্গে ১০ সন্তানের জন্ম দেন। খবর এনডিটিভির

এর আগে গত মাসে এক সঙ্গে নয় সন্তান প্রসব করে বিশ্ব রেকর্ড করেছিলেন মরক্কোর মালিয়ান হালিমা সিসি। প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, গোসিয়াম থমারা সিথোল ভেবেছিলেন তিনি আট সন্তানের জন্ম দিতে যাচ্ছেন। আলট্রাসনোগ্রামেও তাই ধরা পড়েছিল। কিন্তু সোমবার যখন তিনি একসঙ্গে ১০ সন্তানের জন্ম দেন তখন গোসিয়াম ও পরিবার হতবাক হয়ে পড়েন।

একসাথে ১০ সন্তানের জন্ম দেয়া নারী হাউটেং (জোহানেসবার্গ) প্রদেশের প্রিটোরিয়া সংলগ্ন থেম্বিসা এলাকার বাসিন্দা।

গোসিয়ামের স্বামী তেভো সোসোটেসি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ১০ সন্তানের মধ্যে সাতজন ছেলে এবং তিনজন মেয়ে। গোসিয়াম সাত মাস সাত দিনের অন্তসত্ত্বা ছিলেন। একসঙ্গে তার স্ত্রী ১০ সন্তানের জন্ম দেয়ায় তিনি বেশ আনন্দিত বলেও জানান।

গোসিয়াম জানান, স্বাভাবিকভাবেই তিনি গর্ভধারণ করেছেন। তিনি ফার্টিললিটির কোনো চিকিৎসা করেননি। ইতোমধ্যে অবশ্য তার ছয় বছর বয়সী যমজ সন্তান রয়েছে।

এক সাক্ষাৎকারে গোসিয়াম বলেন, প্রথম দিকে ডাক্তাররা যমজ সন্তান বলছিল। আমি নিশ্চিত ছিলাম যমজ বা ট্রিপল সন্তান হবে। এর চেয়ে বেশি নয়। কিন্তু যখন ডাক্তার আমাকে ১০ সন্তানের কথা বলেছেন তখন বিশ্বাস করতে কষ্ট হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমি কেবল ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি যেন আমার সমস্ত শিশুদের সুস্থ অবস্থায় বাঁচিয়ে রাখে। আমি এবং আমার সন্তানরা এখন সম্পূর্ণ সুস্থ। আমি সকল চিকিৎসককে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের একজন প্রতিনিধি বলেছেন, সংস্থা বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

মঙ্গলবার সংস্থাটির একজন মুখপাত্র বলেছেন, একসঙ্গে ১০ সন্তান জন্ম দেয়ায় গোসিয়াম থমারা সিথোল এবং তার পরিবারকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাই। বর্তমান পরিস্থিতিতে আমরা এখনও বিষয়টি যাচাই করতে পারিনি। এই মুহূর্তে মা ও সন্তানদের সুস্থতাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।