আগামী ১৪ মে শুক্রবার ঈদ হতে পারে। সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঈদের দিন ও আগে পরে দু’দিনসহ মোট তিনদিনের বেশি ছুটি দেয়া হবে না। কাজেই ঈদের ছুটি হবে তিনদিন, এর মধ্যে শুক্র ও শনিবারও রয়েছে। শিল্প-কারখানাও এই সময়ের বেশি ছুটি দিতে পারবে না।

আজ সোমবার (৩ মে) সচিবালয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠকের পর প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘সরকারি বেসরকারি যেগুলো যেভাবে আছে সেভাবেই থাকবে। এর কোনো নড়চড় হবে না।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানান, আসন্ন ঈদুল ফিতরের সময় শিল্প-কারখানায় তিনদিনের বেশি ছুটি দেয়া যাবে না। করোনা সংক্রমণরোধে চলমান লকডাউনের (বিধিনিষেধ)  মেয়াদ আগামী ১৬ মে পর্যন্ত বাড়ানো হবে। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১৩ বা ১৪ মে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে।

উল্লেখ্য, কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধে গত ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে আটদিনের কঠোর লকডাউন শুরু হয়। লকডাউনের মধ্যে পালনের জন্য ১৩টি নির্দেশনা দেয়া হয় সরকারের পক্ষ থেকে। পরে সাতদিন করে দু-দফা লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হয়। সেই মেয়াদ শেষ হবে আগামী ৫ মে (বুধবার) মধ্যরাতে। ৬ মে ভোর ৬টা থেকে আবারও লকডাউন শুরু হবে, চলবে ১৬ মে রবিবার মধ্যরাত পর্যন্ত।