স্বামীকে হত্যা করে লাশ পুকুরে ফেলে দেয়ার অভিযোগ ওঠেছে তারই স্ত্রী লিমা আক্তারের বিরুদ্ধে। আর এ হত্যাকাণ্ডে পরকীয়া  প্রেমে আসক্ত লিমার  প্রেমিক শাহাদাত হোসেন কাইয়ুমের যোগসাজসে এমন নৃশংস ঘটনাটি ঘটে।

সীতাকুণ্ডের বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের মধ্যম মাহমুদাবাদ তাহরিপাড়া তেলীবাড়ী এলাকায় শুক্রবার রাত দেড়টা থেকে আড়াইটার মধ্যে এটি  ঘটে। নিহত  ব্যক্তির নাম জয়নাল। তিনি ওই এলাকার মৃত ইসলামের ছেলে।

নিহতের বোন সাবিনা ইয়াছমিন ও এলাকাবাসী জানান, জয়নালের স্ত্রীর সঙ্গে পার্শ্ববর্তী শাহাবুদ্দিনের ছেলে শাহাদাত হোসেন কাইয়ুমের পরকীয়া সম্পর্ক দেড় বছর ধরে। এ বিষয়ে গত কয়েক দিন ধরে সামাজিকভাবে সালিশী বৈঠক হয়। শেষবারের মতো বৈঠকের একদিন পরেই হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটে।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ৬নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য  ইয়াসিন আরফাত মুন্না বলেন, ‘স্ত্রীকে পরকীয়া থেকে মুক্ত রাখতে জয়নাল কয়েকদফা গ্রাম্য সালিশী বৈঠক করেন। অথচ বৈঠকের একদিনের মাথায় এমন হত্যাকাণ্ডটি ঘটে।’

সীতাকুণ্ড মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুমন জানান, পরকীয়ার জেরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা যাচ্ছে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী লিমাকে আটক করা হলেও  প্রেমিক শাহাদাত হোসেন কাইয়ুমকে পুলিশ গ্রেপ্তার করতে পারেনি।