৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শীতকালীন সময়ে করোনা সংক্রমণ থেকে নিজেদের রক্ষা  করতে ঘরের বাইরে সবসময় মাস্ক পড়ে থাকা, ৩ ফুট দুরত্ব বজায় রাখা ও ঘন ঘন সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার আহ্বান জানিয়ে  এবং সংবিধান, আইন ও আদালতের নির্দেশ মেনে চট্টগ্রামের সকল প্রতিষ্ঠানকে তাদের নাম ফলকের উপরে ৬০ ভাগ বাংলা ও নীচের ৪০ ভাগে যে কোনো ভাষা ব্যবহার করার আহ্বান জানিয়ে আইন ও আদালতের নির্দেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আজ  রবিবার (৪অক্টোবর) সকাল ১১ টায় চট্টগ্রাম কোর্ট বিল্ডিং এর প্রবেশমুখে স্মৃতি ২৪ চত্বরে এক পথ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় শিক্ষার সর্বস্তরে বাংলা ভাষার প্রচলন, সংবিধান মেনে সমগ্র দেশে একমুখী গণমুখী বাধ্যতামুলক প্রাথমিক শিক্ষা প্রর্বতনের দাবি জানানো হয়। সভায় বক্তারা বলেন, করোনা প্রমাণ করেছে মাতৃভাষার কোনো বিকল্প নেই। মাতৃভাষায় প্রচার প্রচারণার ফলেই জনগণ দ্রুত এই রোগ সম্পর্কে ধারণা পেয়ে নিজেদের সুরক্ষা করতে সক্ষম হয়েছে। সভায় বাংলাদেশের বিভিন্ন জাতি যাদের জনসংখ্যা কম তাদের মাতৃভাষাও লালন করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

বাংলাদেশের মুক্তিসংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষণা কেন্দ্র ট্রাস্ট-চট্টগ্রাম, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ-চট্টগ্রাম মহানগর ইউনিট কমান্ড, গণ অধিকার চর্চা কেন্দ্র-চট্টগ্রাম, বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্র, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড, জননেতা রহমতউল্লাহ চৌধুরী ফাউন্ডেশন, চৈতগ্রাম, ব্রিগেড- ৭১ – এসব সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সোলায়মান খান, বক্তব্য দেন ডা. মাহফুজুর রহমান, কমান্ডার মোজাফ্ফর আহমদ, সুজাউদৌলা বাবুল, সিকদার মো নজিব, মশিউর রহমান খান, আবু জাফর মাহমুদ, আসমা আকতার, সরওয়ার আলম মনি, রাজেশ ইমরান, আরাফাতুল মান্নান ঝিনুক, জয়নুদ্দিন জয়, বেলাল হোসেন,মো.শফিকুল মনির, মুক্তা জামান,অপূর্ব নাথ, জান্নাতুল মাওয়া,নাসিমা আকবর, সাইমুন নাহার, প্রকাশ মজুমদার, ধ্রুব ভট্টাচার্য প্রমুখ। সভা শেষে একটি মিছিল নিউমার্কেট ঘুরে শহীদ মিনারে যায় এবং সেখানে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য শেষে কর্মসূচির সমাপ্তি ঘটে।