৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

২৫ হাজার আবাসিক গ্রাহকসহ চট্টগ্রাম অঞ্চলে সব ধরনের গ্যাস সংযোগ দেয়ার দাবিকে যৌক্তিক উল্লেখ করে চসিক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন বলেছেন, নতুন আবাসিক গ‍্যাস সংযোগের জন্য চট্টগ্রামবাসী বহুদিন ধরে হাহাকার করছে। প্রশাসকের দায়িত্ব পাওয়া আগে থেকেই আমি আবাসিক গ‍্যাস সংযোগ প্রদানের জন‍্য সোচ্চার ছিলাম।

বিভিন্ন সময়ে আমি আবেদন নিবেদনসহ আন্দোলন করেছি। চট্টগ্রাম একটি গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল বিবেচনায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এ চট্টগ্রামের জন‍্য অনেক উন্নয়ন কাজ সম্পাদন করেছেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় চট্টগ্রামে গ‍্যাস স্বল্পতা নিরসনকল্পে এলএনজি সরবরাহ নিশ্চিত করা হলেও ২৫ হাজারেরও বেশি অপেক্ষমাণ আবাসিক গ্রাহককে গ‍্যাস সংযোগ দেয়া হয়নি। লাইনের গ্যাস সংযোগ ব্যবহারে নিরাপদ ও ঝুঁকিমুক্ত।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজনের কাছে আজ সোমবার (৩১ আগস্ট) নগরভবনে কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড ঠিকাদার সমিতির নেতারা স্মারকলিপি দিতে এলে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় প্রশাসকের একান্ত সচিব মোহাম্মদ আবুল হাশেম, কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড ঠিকাদার সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ ইকরাম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হোসেন চৌধুরী, হারুন সাহেদ, দেলোয়ার হোসেন দুলাল, বায়েজিদ হোসেন ঢালী, ফারুক আকবর, নুরুন নবী, মো. জহিরুল ইসলাম জহির, আবুল বশর, দেবপ্রিয় চৌধুরী সানু, ইয়াহিয়া বকুল উপস্থিত ছিলেন।

চসিক প্রশাসকের সাথে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সাক্ষাত

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ক্যারভান কার্যক্রমের উদ্বোধনী দিনে কাপ্তাই রাস্তা মোড় পরিদর্শনের সময় স্থানীয় এলাকাবাসী সরকারী লাইসেন্স প্রাপ্ত একটি মদের দোকানে ঢালাও মদ বিক্রি এবং মদের দোকানটিকে ঘিরে অসামাজিক কার্যকলাপ সংগঠিত হওয়ার অভিযোগ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক আলহাজ্ব মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজনের নিকট উত্থাপন করেন। এ সময় প্রশাসক ঢালাওভাবে মদ বিক্রি না করা এবং কোনো রকম অসামাজিক কার্যকলাপ যাতে সংগঠিত না হয় সে ব্যাপারে বিক্রেতা মালিককে সর্তক করে দেন। এরপর থেকে সরকারী লাইসেন্সপ্রাপ্ত ঐ দোকানটিতে মদ বিক্রি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিক্রেতা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর বিভাগীয় কার্যালয়ে একটি আবেদন পত্র জমা দেন। সে আবেদনের প্রেক্ষিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর বিভাগীয় কর্মকর্তারা আজ বিকেলে টাইগারপাসস্থ চসিক প্রশাসক দপ্তরে প্রশাসকের সাথে সাক্ষাত করেন। এ সময় প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের জানান যে, কাপ্তাই রাস্তা মোড়ে দোকানটিতে মদ বিক্রি ব্যাপারে কোনো নিয়ম-নীতি মানা হয় না এবং ঢালাওভাবে সকলের কাছে মদ বিক্রি করা হয়-এর ফলে এলাকার পরিবেশ  অসহনীয় হয়ে উঠে। তিনি আরো বলেন, দেশে উৎপাদিত কানন্ট্রি লিকার শুধুমাত্র লাইসেন্স প্রাপ্তদের মধ্যে বিক্রি করতে হবে। এর বাইরে ঢালাওভাবে বিক্রি করা যাবে না। তিনি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সরকারি বিধি-বিধান মেনে লাইসেন্সপ্রাপ্ত দোকানগুলোতে লাইসেন্স বিহীন ব্যক্তিদের কাছে মদ বিক্রি হচ্ছে কি না সে ব্যাপারে তদারকি করার আহ্বান জানান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর অতিরিক্ত বিভাগীয় পরিচালক মুজিবুর রহমান পাটোয়ারী, উপ পরিচালক রাশেদুজ্জামান,  প্রশাসকের একান্ত সচিব মোহাম্মদ আবুল হাশেম ।

আর পড়ুন:   প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

চসিক প্রশাসকের নিকট সুরক্ষা সামগ্রী হস্তান্তর করল ওয়ার্ল্ড ভিশন

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক আলহাজ্ব মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজনের নিকট আজ সোমবার বিকেলে প্রশাসক দপ্তরে করোনা মহামারি মোকাবেলার জন্য ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ এর পক্ষ থেকে পিপি, স্যানিটাইজার, মাক্স ও গ্লাভস হস্তান্তর করা হয়। এ সময় প্রশাসক ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ এর কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানিয়ে সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। এতে উপস্থিত ছিলেন একান্ত সচিব মোহাম্মদ আবুল হাশেম,  ওয়ার্ল্ড ভিশন এর প্রোগ্রাম অফিসার খ্রিষ্টোফার কুইয়্যা ও সিআর এস এফ মো. ইশতিয়াক আরাফাত।