৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২০শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

টেকনাফের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান নিহত হওয়ার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন।

আজ সোমবার(১৭আগস্ট) বিকেল ৫টার দিকে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান। পরে তিনি ওই এলাকার কিছু প্রত্যক্ষদর্শীর সঙ্গে কথা বলেন এবং ঘটনার বিষয়ে জানতে চান।

পরিদর্শন শেষে র‌্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন সাংবাদিকদের বলেন, মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলার তদন্ত অত্যন্ত গুরুত্ব ও পেশাদারিত্বের সঙ্গে করছে র‌্যাব। তদন্ত কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে যা যা প্রয়োজন করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমি নিজেই অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে এই মামলার তদন্ত কার্যক্রম তদারকি করছি। অত্যন্ত পেশাদারিত্বের সঙ্গে এই মামলার তদন্ত কার্যক্রম চলছে। এই ঘটনা নিয়ে বাহিনীগুলোর মধ্যে কোনো সমন্বয়হীনতা নেই বলে তিনি জানান।

র‌্যাব মহাপরিচালক বলেন, ‘বিভিন্ন জায়গা থেকে তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। একটার সঙ্গে আরেকটা মিলাচ্ছি। তদন্তের পরে আমরা বলতে পারব এবং আমরা কাজ করছি।’

সাংবাদিকরা তার কাছে জানতে চান, ‘আপনি নিজে পুলিশের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। এ ঘটনায় আসামিও পুলিশ, তাই বিব্রতবোধ করছেন কিনা।’ জবাবে তিনি বলেন, ‘কোনো বিব্রতবোধ করছি না। পেশাদারিত্বের সঙ্গে সকলে মিলে এটি কাজ করছি। আমাদের তদন্ত কর্মকর্তা একজন দক্ষ অফিসার। পেশাদারিত্বের সঙ্গে তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করবেন তিনি।’

র‌্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন কক্সবাজার বিমানবন্দর থেকে বিকাল ৪টার দিকে ঘটনাস্থল বাহারছড়ার শামলাপুরে যান। ৫টার দিকে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন র‌্যাবের গোয়েন্দা শাখার পরিচালক লে. কর্নেল সারওয়ার-বিন-কাশেম, মিডিয়া উইংয়ের মুখপাত্র লে.কর্নেল আশিক বিল্লাহ, র‌্যাব-১৫ কপবাজার ব্যাটালিয়নের উইং কমান্ডার আজিম আহমেদ, সহকারী পরিচালক এএসপি খাইরুল ইসলাম প্রমুখ। এর আগেকক্সবাজার পৌঁছে তদন্ত কর্মকর্তার সঙ্গে কথাও বলেছেন র‌্যাব মহাপরিচালক ।