৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

জামিনের পর একই দিনে কারাগার থেকে মুক্তি পেলেন স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ফিল্ম এন্ড মিডিয়া স্ট্যাডিজ বিভাগের শিক্ষার্থী শিপ্রা রানী দেবনাথ।

আজ রবিবার (৯ আগস্ট) দুপুরে শিপ্রা দেবনাথের আইনজীবী আবুল কালাম আজাদ সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, মহিলা বিবেচনায় মামলার প্রতিবেদন না দেয়া পর্যন্ত শিপ্রাকে আজ সকালে জামিন দিয়েছে আদালত।

এদিকে, ওই ঘটনায় পুলিশের মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে থাকা সাহেদুল ইসলাম সিফাতের জামিনের আবেদনের শুনানি আগামীকাল সোমবার হবে বলে তিনি জানান।

গত ৩১ জুলাই রাতে যখন টেকনাফে পুলিশ চেকপোস্টে সিনহাকে গুলি করা হয় তখন তার সঙ্গে ছিলেন স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির ফিল্ম এন্ড মিডিয়া স্ট্যাডিজ বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র সাহেদুল ইসলাম সিফাত। পুলিশ টেকনাফ থানায় ওই হত্যার ঘটনায় যে মামলা করেছে তাতে সিফাতকে আসামি করা হয়েছে। সে এখন কক্সবাজার জেলা কারাগারে আছে।

ঘটনার সময় একই বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শিপ্রা রানী দেবনাথ এবং ফাইনাল ইয়ারের শিক্ষার্থী তাহসিন রিফাত নূর হিমছড়ির একটি রিসোর্টে ছিলেন। সেই রিসোর্টে অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাদের দুজনকে আটক করে। পরে রামু থানায় শিপ্রার বিরুদ্ধে মদের বোতল রাখার অভিযোগে মাদক আইনে একটি মামলা দেয়া হয়। একই সঙ্গে তাহসিন রিফাত নূরকে মুচলেকা রেখে এক আত্মীয়ের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়।

শিপ্রার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়া। তার বাবা বিজিবির অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা।