৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দেশে করোনাভাইরাসে  গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর তালিকায় যুক্ত হয়েছেন আরও ৪২ জন। করোনাভাইরাস বিষয়ে আজ বুধবার (২২ জুলাই) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য তুলে ধরা হয়। অনলাইনে বুলেটিন উপস্থাপন করেন অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল দুই হাজার ৭৫১ জনে। নমুনা শনাক্তের তুলনায় মৃত্যুহার ১ দশমিক ২৯ শতাংশ। অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে পুরুষ ৩০ জন ও মহিলা ১২ জন। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল দুই হাজার ৭৫১ জনে। নমুনা শনাক্তের তুলনায় মৃত্যুহার ১ দশমিক ২৯ শতাংশ।

একই সময়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও দুই হাজার ৭৪৪ জন। ফলে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল দুই লাখ ১৩ হাজার ২৫৪ জনে। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৭৭ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৯৯ শতাংশ।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ১১ হাজার ৫৭৬ টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ১২ হাজার ৫০টি নমুনা। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো ১০ লাখ ৬৬ হাজার ৬০৯টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও ১ হাজার ৮০৫ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ১ লাখ ১৭ হাজার ২০২ জনে। রোগী শনাক্তের তুলনায় সুস্থতার হার ৫৪ দশমিক ৯৬ শতাংশ।

বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত ৪২ জনের মধ্যে দশোর্ধ্ব একজন, ২০ বছরের বেশি বয়সী একজন, ত্রিশোর্ধ্ব তিনজন, চল্লিশোর্ধ্ব তিনজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব ১১ জন, ষাটোর্ধ্ব ১৪ জন, সত্তরোর্ধ্ব আটজন এবং আশির্ধ্ব একজন রয়েছেন।

বিভাগওয়ারি পরিসংখ্যান অনুসারে মোট করোনায় মৃতদের মধ্যে ২১ জন ঢাকা বিভাগের, আটজন চট্টগ্রাম বিভাগের, দুইজন রাজশাহী বিভাগের, তিনজন সিলেট বিভাগের, দুইজন রংপুর বিভাগের এবং তিনজন খুলনা বিভাগের রয়েছেন।