১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কোরবানির ঈদে এবার গরু বা পশু ব্যবসায়ীদের সুবিধার জন্য রেলওয়ে দেশের উত্তরাঞ্চল ও পশ্চিমাঞ্চল থেকে ঢাকা ও চট্টগ্রামে ট্রেনে করে কোরবানির পশু পরিবহন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে । আজ মঙ্গলবার (৭ জুলাই) রেল মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর ও সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী মহলের সাথে আলোচনা করে কোরবানির পশু পরিবহনে সম্ভাব্য দিন তারিখ, রুট ও স্টেশন নির্ধারণ করা হবে। আগ্রহী ব্যবসায়ীদের রেলওয়ের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ০১৭১১-৬৯১৫২০ নম্বর যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে রেলপথ মন্ত্রণালয়।

এ বিষয়ে রেলপথ মন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, ব্যবসায়ীদের চাহিদার ভিত্তিতে যে কোনো দিন থেকেই এ ট্রেন চালু করা যাবে। গাইবান্ধা বা পাবনা অথবা কুষ্টিয়া থেকে চট্টগ্রামে প্রতি গরুর ভাড়া সর্বোচ্চ দুই হাজার ৫০০ টাকা এবং ঢাকায় এক হাজার ৫০০ থেকে ২ হাজার টাকা হতে পারে।

করোনা মহামারির মধ্যে আম ব্যবসায়ীদের সুবিধায় রেলওয়ের মধ্যে আম পরিবহনে ম্যাংগো স্পেশাল নামে ট্রেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও রাজশাহী থেকে পরিচালনা করছে। এর ফলে ব্যবসায়ীরা সহজেই ঢাকাসহ অন্যান্য শহরে খুবই অল্প ভাড়ায় আম পরিবহন করতে পারছেন। তাছাড়া করোনার লকডাউনের মধ্যে পণ্য পরিবহনে প্রতিদিন রেলওয়ের ৮-১০ টি মালবাহী ট্রেন চলাচল করছে।

যাত্রীদের যাতয়াতের সুবিধায় ইতোমধ্যে এক মাসের বেশি সময় ধরে ১৭ জোড়া ট্রেন বিভিন্ন গন্তব্যে চালাচ্ছে। যাতে বর্তমানে যাত্রীর সংখ্যা দিনে দিনে কমছে। এতে রেলের লোকসান বাড়ছে। আর সে লাকসানের বোঝা কমাতে রেল এখন বিভিন্ন পণ্য, আম, ফল- মূল এবং এবারের ঈদে কোরবানির পশু পরিবহনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে পশু ব্যবসায়ীদের একদিকে যেমন পরিবহন খরচ কমবে তেমনি রেলেরও কিছু আয়ও হবে।