৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৩৪৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৩৭২ জনের দেহে করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে । নতুনভাবে আক্রান্তদের মধ্যে নগরের ২৫৯ জন ও বিভিন্ন উপজেলার আছেন ১১৩ জন।

চট্টগ্রামে এ নিয়ে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ হাজার ৮৫২ জনে। এর মধ্যে নগরের ৬ হাজার ৯৮ জন ও বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা আছেন ২ হাজার ৭৫৪ জন।

গত ২৪ ঘন্টায় চট্টগ্রামে করোনায় সংক্রমিত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ৫ জন। এর মধ্যে ১জন নগরের ও ৪জন উপজেলার। করোনার সংক্রমণে চট্টগ্রামে সর্বশেষ মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৭৮ জন। এর মধ্যে নগরের ১৩৪ জন ও বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা ৪৪ জন।।

আজ বুধবার (১ জুলাই) সকালে এসব তথ্য জানান চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি।

তিনি জানান, গতকাল মঙ্গলবার ফৌজদারহাটের বিআইটিআইডিতে ৩১০ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে ৩৯ জনের দেহে । এর মধ্যে নগরের ৩০ জন ও উপজেলা পর্যায়ের আছেন ৯ জন।

এছাড়া মঙ্গলবার চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ৩১৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা আক্রান্ত রোগি পাওয়া গেছে ৭৩জন। এর মধ্যে নগরের ৬১ ও বিভিন্ন উপজেলার ১২ জন।

মঙ্গলবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১৮৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে নগরের ৩১ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ২৯ জন ।

এদিকে মঙ্গলবার চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ইউনিভার্সিটির (সিভাসু) ল্যাবে ১৪৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ এসেছে ৩৬ জনের শরীরে। এর মধ্যে নগরের ৬ জন ও ৩০জন বিভিন্ন উপজেলার ।

শেভরণ ল্যাবে ২০৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ এসেছে ১১০ জনের। এদের মধ্যে নগরের ৯৫ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ১৫ জন ।

বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ১৫৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৪৪জন করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন । এদের মধ্যে নগরের ৩৬ জন ও উপজেলার ৮ জন।

আর পড়ুন:   করোনাভাইরাসে চট্টগ্রামে নতুন  আক্রান্ত ২২৯ জন

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ২৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছেন ১০ জন।

বিভিন্ন উপজেলা পর্যায়ে নতুন শনাক্ত ১১৩ জনের মধ্যে সাতকানিয়ার ১৩, বাঁশখালীর ৭, আনোয়ারার ৪, চন্দনাইশের ৭, পটিয়ার ৮, বোয়ালখালীর ৪, রাঙ্গুনিয়ার ১৯, রাউজানের ১৫, ফটিকছড়িতে ৭, হাটহাজারীতে ২১, সীতাকুণ্ডে ৫ জন ও মিরসরাইয়ের আছেন ৩ জন ।

করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় চট্টগ্রামে সুস্থ হয়েছেন ৪১ জন; এ পর্যন্ত মোট ১ হাজার ৬৫ জন সুস্থ হয়েছেন।