১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সুরের জাদুতে অসংখ্য মানুষের হৃদয় জয় করেছে বাংলাদেশের পপগানের শিল্পী মেহরীন মাহমুদ। জনপ্রিয় এ শিল্পীর জন্মদিন আজ (৩০ অক্টোবর)। আগের বছর নিজের জন্মদিনে অন্যরকম এক খবর জানিয়েছিলেন তিনি। ‘মরণোত্তর চক্ষুদান’এর কথা জানিয়েছিলেন মেহরীন।
এবারের জন্মদিনে জানা গেলো মেহরীনের আরও দুটি নতুন খবর। এ শিল্পী এবার গাইবেন গুলশান ক্লাবের একটি কনসার্টে। আগামী শুক্রবার (২ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ভারতীয় দূতাবাসের ইন্দিরা গান্ধী সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের আয়োজনে এবং গুলশান ক্লাবের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হবেএ অনুষ্ঠানটি ।
কনসার্টটি সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। আসন খালি থাকার ভিত্তিতে যারা আগে আসবেন তাদের জন্য প্রবেশ উন্মুক্ত থাকবে।
এছাড়া নতুন অ্যালবামের খবরও দিলেন তিনি। এবার মেহরীনের কণ্ঠে শ্রোতারা শুনতে পাবেন রবীন্দ্রনাথ ও নজরুলের গান। রবীন্দ্রনাথ এবং নজরুলের পাঁচটি করে মোট ১০টি গান নিয়ে মেহরীন তৈরি করছেন একটি পূর্ণাঙ্গ অ্যালবাম।
এই অ্যালবামটির নাম ‘বন্ধুতা’। এরই মধ্যে অ্যালবামের কাজ প্রায় শেষ করেছেন তিনি। এটি মেহরীনের নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল ‘গো গার্ল’-এ প্রকাশিত হবে বলে জানা গেছে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে এম এ (সম্মান) স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন মেহরীন মাহমুদ। ১৯৯৪ সালে কর্মজীবন শুরু করেন এবং তার প্রথম গানের অ্যালবাম প্রকাশিত হয় ২০০০ সালে।
এই শিল্পীর উল্লেখযোগ্য অ্যালবামের মধ্যে রয়েছে- আনারি (২০০০), দেখা হবে (২০০২), মনে পড়ে তোমায় (২০০৪), একটি রোমাঞ্চকর প্রতিযোগিতা (২০০৫), ডোন্ট ফরগেট মি. (২০০৬), তুমি আসবে বলে (২০০৮), সপ্তম(২০১৫)।
গানের জন্য একাধিক পুরুস্কারে ভুষিত হয়েছেন মেহরীন। দেশে-বিদেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে তার লাখ লাখ ভক্ত।
বর্তমানে বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে লাইভ প্রোগ্রাম আর স্টেজ শো নিয়ে চরম ব্যস্ত সময় পার করছেন মেহরীন মাহমুদ। স্পষ্ট এবং মিষ্টভাষী মেহরীন মাহমুদ মানবতার প্রতীক। যার লক্ষ্য দৃষ্টিহীনদের চোখের দৃষ্টি প্রদীপ জ্বালানো।
মেহরীনের ভাষ্য ‘বাংলাদেশে প্রয়োজনের তুলনায় মরণোত্তর চক্ষুদানের হার একবারেই কম। অথচ আমাদের মৃত্যুর পর আমাদের চোখ দিয়ে যদি কেউ পৃথিবীর আলো দেখতে পায় তবে এর চেয়ে বড় স্বার্থকতা আর কী হতে পারে?’