১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বাংলাদেশের তথ্য প্রযুক্তিখাতে বড় আকারে পরিবর্তন এলেও তথ্যের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হচ্ছে না অধিকাংশ ক্ষেত্রেই। তার কারণে বড় ধরণের সাইবার নিরাপত্তার ঝুকিতে রয়েছে বাংলাদেশের আইটি খাত। যে কোনো মুহুর্তে ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে সরকারি-বেসরকারি, আর্থিক বা অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানের ডাটাবেইজ, ওয়েবসাইট। সাম্প্রতিককালে বাংলাদেশ ব্যাংকসহ আরো ২টা বেসরকারি ব্যাংক হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে আর্থিক ক্ষতি তারই ঈঙ্গিত বহন করে। তাই এখন থেকে সজাগ হতে হবে। প্রযুক্তিগত নিরাপত্তা বাড়াতে হবে। মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর ) নগরীর একটি রেস্টুরেন্টে চট্টগ্রামের আইটি প্রফেশনালদের একমাত্র সংগঠন সোসাইটি ফর আইটি প্রফেশনালস এর “সেমিনার অন ইনফরমেশন সিকিউরিটি” অনুষ্ঠানে সিকিউরিটি স্পেশালিস্টগণ কথা গুলো বলেন।

এসসিআইটিপি’র সভাপতি মো: আবদুল্লাহ ফরিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সেমিনারে বাংলাদেশের বিখ্যাত আইটি সিকিউরিটি প্রতিষ্ঠান বিটলস লিমিটেডের কর্মকর্তাগণ তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরেন । সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম মাহিনের সঞ্চালনায় সিকিউরিটি বিষয়ক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিটলস লিমিটেডের হেড অব সিকিউরিটি অপারেশন্স শাহী মির্জা এবং রিসার্চ ইঞ্জিনিয়ার কায়সার ইউসুফ। সিকিউরিটির গুরুত্বপূর্ণ দিক নিয়ে আলোচনা করেন চীফ অপারেটিং অফিসার মনজুর হোসাইন চৌধুরী, হেড অব রেড টিম তারেক সিদ্দিকী, চীফ মার্কেটিং অফিসার আসরার হোসাইন।

এতে চট্টগ্রামের বিভিন্ন কোম্পানীর প্রায় ৫০ জন আইটি কর্মকর্তা অংশ নেয়। তারা সিকিউরিটি ইস্যুতে সম্মুখীন বিভিন্ন অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন। বিটলসের কর্মকর্তাগণ চট্টগ্রামের প্রতিষ্ঠানগুলোর সিকিউরিটি বিষয়ক যে কোনো সমস্যায় পাশে থাকার আশ্বাস দেন।

উপস্থিত ছিলেন এসসিআইটিপি’র সহ সভাপতি তামিম ওয়াহিদ আল হেলাল, যুগ্ম সম্পাদক রিপন চৌধুরী, অর্থ নিয়ন্ত্রক শাহ পরান।