১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

গৃহায়ন গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেছেন,  আগামী ডিসেম্বর মাসে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবেসংবিধান অনুযায়ী শেখ হাসিনার প্রধানমন্ত্রীত্বেই জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবেশনিবার (০৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে নগরের আগ্রাবাদের জাম্বুরিপার্কের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানঅতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘নির্বাচনে আশা করি সকল দল অংশগ্রহণ করবে এবং নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত করবে। গত দশ বছর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে যে উন্নয়ন কাজ করেছেন, সেই প্রেক্ষিতে নৌকা আবার ক্ষমতায় আসতে পারবে। আমি মনে করি, নৌকার বিজয় হবে। আমরা অনেক এগিয়ে যাচ্ছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যাকে মনোনয়ন দেবেন, আল্লাহর ওয়াস্তে আপনারা তার জন্য ভোট চাইবেন। তার জন্য চাইবেন না, শেখ হাসিনার জন্য চাইবেন।
দৃষ্টিনন্দন আগ্রাবাদের জাম্বুরি পার্ককে ঢাকার রমনাপার্কের সঙ্গে তুলনা করে গণপূর্তমন্ত্রী বলেন, ‘জাম্বুরিপার্কের পরিষ্কারপরিচ্ছন্ন রাখার দায়িত্ব আমাদের। পার্কে ধুমপান করা যাবে না। বাদাম খাওয়া যাবে না। পার্কে শুধু হাঁটবেন আর নিঃশ্বাস নেবেন। পার্কে লেকের মতো পানি রাখা হয়েছে, গোসল করার জন্য নয়। সেখানে গোসল করা যাবে না। স্বাস্থ্যকর পরিবেশেই হাঁটবেন। পার্ক আমাদের চট্টগ্রামের। পার্কে নানা প্রজাতির গাছ রোপণ করা হয়েছে। গাছগুলো বাড়তে দিতে হবে। গাছগুলো যখন বড় হবে, তখন রমনা পার্কের চেয়েও সুন্দর হবে।
ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন আরও বলেন, ‘ঢাকাতে উন্নয়ন হয়েছে, চট্টগ্রামে উন্নয়ন হবে। মনসুরাবাদে আমরা ২০ তলা ভবন করবো। সরকারি কর্মকর্তাকর্মচারী যারা চট্টগ্রামে আসবেন, তাদের শতভাগ আবাসনের ব্যবস্থা করবো। আর জাম্বুরি পার্কের পাশ্ববর্তী যেইটা আছে (আগ্রাবাদ শিশু পার্ক), সেটির মামলা চলছে। মামলা যখন শেষ হবে, দিনের মধ্যে সেটি পরিষ্কার হয়ে যাবে। পরিষ্কার করবো কার জন্য? আমার জন্য নয়। আপনাদের জন্য, এই এলাকার জন্য। সেখানে ৩টি মাঠ হবে। একটি ফুটবল, একটি ক্রিকেট একটি হকি খেলার মাঠ হবে। সেখানে আমি লাইট দেবো, যাতে রাতেও খেলা যায়। আপনাদের কাছ থেকে এক টাকাও নেবো না। সব টাকা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেবেন।
তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী টাকা দিয়েছেন বলেই তো জাম্বুরি পার্ক করতে পেরেছি। পার্ক পরিষ্কারপরিচ্ছন্ন রাখার দায়িত্বআপনাদের। এটি আমার দাবি এবং এটি আমি চাই। এটি পরিষ্কার রাখতে পারলে তাহলে চট্টগ্রামে আরও অনেক পার্ক হবে। বায়েজিদে আরও একটি পার্ক হচ্ছে। সেটি অক্টোবরের মধ্যে করতে পারবো। চট্টগ্রামে আরও কয়েকটি পার্ক করবো। যেখানে থাকবে খেলার মাঠ।
নাসিরাবাদ হাউজিং সোসাইটিতে ৩৩টি বাড়ি আত্মসাৎ করতে চেয়েছিলো মন্তব্য করে ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘যেগুলো সরকারি সম্পত্তি। মামলা করে তারা একটা রায়ও পেয়েছিলো। এবার সরকারের পক্ষে আমরা রায় পেয়েছি। প্রধানমন্ত্রীকে আমি সুখবরটি জানিয়েছি। ওনি বলেছেন, খুব ভাল করেছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন আপনি প্রাইমারি ডিপিপি নিয়ে আসেন। আমরা সেখানে সরকারি কর্মকর্তাকর্মচারীদের জন্য বহুতল ভবন করবো। ইতিমধ্যে ডিপিপি মন্ত্রণালয়ে চলে গেছে। এইটি আমার ইচ্ছে নয়, প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছা। কেউ যদি এইটাতে খুশি হয়, আমার কিছু আসে যায় না। যারা পাকিস্তানে চলে গেছে, সেই সম্পত্তি সরকারের। যুদ্ধ করেছি আমরা, রক্ত দিয়েছি আমরা ওরা পাকিস্তানে চলে গেছে। সম্পত্তি কার হবে? সম্পত্তি হবে সরকারের। সেখানে কি কোপারেটিভ সোসাইটি হবে? হবে না। আরও কয়েকটি পার্ক করার পরিকল্পনা আছে। কয়েকটি মামলা চলমান আছে। মামলা চলে গেলে সেখানে অতি দ্রুত পার্ক করবো।
গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিখি ছিলেন চট্টগ্রাম১১ আসনের সংসদসদস্য এম লতিফ, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম সালাম, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান।
গণপূর্ত মন্ত্রণালয় চট্টগ্রামে জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোসলে উদ্দিন আহমেদ সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন।