১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

খাগড়াছড়ি শহরের অদূরে স্বনির্ভর এলাকায় সন্ত্রাসীদের ব্রাশফায়ারে ৬জন নিহত হয়েছেন। এছাড়াও গুলিবিদ্ধ হয়েছেন আরো ৩জন। শনিবার (১৮ আগস্ট) সকাল ৯টার মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। সকালে গ্রামবাসীদের নিয়ে একটি সমাবেশ ও বিক্ষোভ করার কথা ছিল ইউপিডিএফের। তার আগেই এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আকস্মিকভাবে অস্ত্রধারী দুর্বৃত্তরা ব্রাশফায়ার করলে ঘটনাস্থলেই ছয়জন নিহত ও তিনজন আহত হন। নিহতদের মধ্যে অধিকাংশই ইউপিডিএফ সমর্থক নেতাকর্মী। তবে সকলের বিস্তারিত পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি।

পুলিশ হতাহতদের উদ্বার করে খাগড়াছড়ি হাসপাতালে নিয়ে এসেছে। এ সময় স্বনির্ভর বাজারে অবস্থিত পুলিশ বক্সেও গুলি লাগে। ইউপিডিএফের জেলা সমন্বয়কারী মাইকেল চাকমা ঘটনার জন্য সংস্কারপন্থী জনসংহতি সমিতিকে দায়ী করেছে। অবশ্য জনসংহতি সমিতি অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

নিহতদের মধ্যে তপন চাকমা, এলটন চাকমা, জিতায়ন চাকমার নাম পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে তপন চাকমা ইউপিডিএফসমর্থিত পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের জেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এবং জিতায়ন চাকমা মহালছড়ি উপজেলা সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক বলে জানা গেছে।

আহতরা হলেন সমর বিকাশ চাকমা (৪৮), সুকিরন চাকমা (৩৫) ও সোহেল চাকমা (২২)। গুলিবিদ্ধ তিনজনকে চিকিৎসা দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেলে রেফার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে।