১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

উপমহাদেশের  কিংবদন্তি নজরুল সঙ্গীতশিল্পী ‘ফিরোজা বেগম স্মৃতি স্বর্ণপদক’ প্রাপ্তির জন্য মনোনিত হলেন দেশবরেণ্য সঙ্গীতশিল্পী রুনা লায়লা। আগামী ৩০ জুলাই, সোমবার বেলা তিনটায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন মিলনায়তনে রুনা লায়লার হাতে দুই ভরি সোনার পদক তুলে দেবেন উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান। সঙ্গে পাবেন এক লাখ টাকাও।

পদক প্রাপ্তির খবরে উচ্ছ্বসিত রুনা লায়লা। তিনি বলেন, ‘ফিরোজা বেগমের মতো দেশ বরেণ্য সংগীতব্যক্তিত্বের স্মৃতিজড়িত পদকের জন্য আমাকে মনোনীত করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এবং সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ। ফিরোজা বেগমের সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে তেমন যোগাযোগ ছিল না। তবে আমাদের পরিচয় ছিল। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে দেখা হয়েছে, শুভেচ্ছা বিনিময় হয়েছে। তাঁর অনেক গান শুনেছি।’

প্রসঙ্গত, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের গানকে ‘নজরুলসঙ্গীত’ হিসেবে পরিচিত করার পেছনে ফিরোজা বেগম মুখ্য ভূমিকা পালন করেন। কিংবদন্তি এ শিল্পী ২০১৪ সালের ৯ সেপ্টেম্বর মারা যান। তাঁর সঙ্গীতকে স্মরণীয় করে রাখতে ২০১৬ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ‘ফিরোজা বেগম স্মৃতি স্বর্ণপদক ও পুরস্কার’ প্রবর্তন করে। গত দুই বছর সাবিনা ইয়াসমিন ও রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা এই স্বর্ণপদক পেয়েছেন।

প্রতি বছর দেশের একজন বরেণ্য ও অন্যতম শ্রেষ্ঠ সঙ্গীতশিল্পী এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগের প্রথম স্থান অধিকারীকে এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়। সেই ধারাবাহিকতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগের বিএ সম্মান পরীক্ষায় এবার সর্বোচ্চ সিজিএ পাওয়া শিক্ষার্থীকে স্বর্ণপদক দেয়া হবে বিশ্ববিদ্যালয়টির সমাবর্তন অনুষ্ঠানে।

সঙ্গীতে বিশেষ অবদান রাখায় সাঁকো টেলিফিল্মের উদ্যোগে আয়োজিত গত ২০ জুলাই একটি অনুষ্ঠানে পদক দেয়া হয় উপমহাদেশের কিংবদন্তী কণ্ঠশিল্পী রুনা লায়লাকে। এলজিআরডি ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মো. মসিউর রহমান রাঙ্গাঁর হাত থেকে পদক গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে আরও পদক পান অভিনেত্রী সুচন্দা, নৃত্য পরিচালক জিনাত বরকত উল্লাহ ও গীতিকার গাজী মাজহারুল আনোয়ার।

 

 

আর পড়ুন:   বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে ডিসি হিলে  মানুষের ঢল