[bangla_date] || [english_date]

নিজস্ব প্রতিবেদক *

১৯৯১ সালে ২৯ এপ্রিল প্রলংকরী ঘূর্ণিঝড় ও জলোচ্ছ্বাসে নিহতদের স্মরণে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করছেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র মোহাম্মদ মনজুর আলম।

১৯৯১ সালে ২৯ এপ্রিল এর প্রলংকরী ঘূর্ণিঝড় ও জলোচ্ছ্বাসে নিহতদের স্মরণে আলহাজ্ব খাজা আবদুল হাকিম শাহ্ আল মাইজভান্ডারীর মাজার প্রাঙ্গণে আলহাজ্ব হোছনে আরা ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের আয়োজনে সোমবার (২৯ এপ্রিল)সকালে খতমে কোরআনেপাক, মিলাদ, দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র মোহাম্মদ মনজুর আলম। সভাপতিত্ব করেন সাবেক অধ্যক্ষ বাদশা আলম। আলোচনা করেন উপাধ্যক্ষ মাহফজুল হক চৌধুরী, প্রফেসর কাজী মাহবুবুর রহমান ও আবু ছগিরসহ অন্যরা। মিলাদ পরিচালনা করেন, অধ্যক্ষ মাওলানা ফরিদুল আলম। মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা আবদুল মান্নান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ মনজুর আলম ১৯৯১ সালের প্রলংকরী ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডব, ধ্বংসলীলা, মানুষ ও প্রাণী পানিতে ভেসে যাওয়া এবং মানুষদের ঘর-বাড়ী সহায় সম্পদ বিলীন হয়ে যাওয়ার প্রত্যক্ষ স্বাক্ষী হিসেবে ঘটনার বিষধ তুলে ধরেন। তিনি বলেন, সেই দিনের প্রলংকরী তান্ডবের আমিও একজন শিকার। আল্লাহর মেহেরবাণীতে আমি বেঁচে ছিলাম। তিনি বলেন, নিজ চোখে দেখেছি কত মানুষ আর গবাদি পশুর জীবন পানিতে ভেসে গেছে তার সঠিক তথ্য পাওয়া ছিল বড়ই দুস্কর। সেই ঘূণিঝড়ে যারা নিহত হয়েছে তারা যেন বেহেস্তে স্থান পান এই আমার ফরিহাদ। তিনি বলেন, সেই দিন থেকে আমার প্রতিজ্ঞা ছিল আল্লাহ যখন জীবন রক্ষা করেছে আমি সেই জীবনের জন্য অর্থাৎ মানবতার জন্য সেবা করে যাব। আল্লাহ আমাদের চলমান সেবাকে কবুল করুন।