১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

চট্টগ্রামে ২৫ লাখ টাকা মূল্যের হাতির দাঁত উদ্ধার ও ক্রয়-বিক্রয় চক্রের সক্রিয় ২ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৭, চট্টগ্রাম।

মঙ্গলবার  (২১ জুন) চান্দগাঁও এলাকায় অভিযান চালিয়ে হাতির দাঁতসহ তাদের আটক করা হয়।আটকরা হলেন -মো. জাহাঙ্গীর আলম (৪৫) ও মো. শহিদুল আলম (৪০)।

বিষয়টি নিশ্চিত করে র‌্যাব-৭ চট্টগ্রামের সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার চাটগাঁর বাণীকে জানান,  গোপন সংবাদের মাধ্যমে র‌্যাব- ৭ জানতে পারে যে, চট্টগ্রাম মহানগরীর চান্দগাঁও থানাধীন টেকবাজার রেলক্রসিং এলাকার ৪র্থ তলা একটি বিল্ডিংয়ের ২৪নম্বর কক্ষের ভেতর কতিপয় ব্যক্তি অবৈধভাবে বন্যপ্রাণি হাতির দাঁত নিজেদের হেফাজতে রেখে ক্রয়-বিক্রয় করার উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৭,  চট্টগ্রাম এর একটি আভিযানিক দল মঙ্গলবার (২১ জুন) রাত আনুমানিক দশটায় ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২ জনকে আটক করতে সক্ষম হয়। আটক জাহাঙ্গীর আলম লক্ষীপুর জেলার রামগতির চর হাসান হোসেন গ্রামের মৃত তফছির আহম্মদের ছেলে।  আর শহিদুল আলম চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার দক্ষিণ পদুয়া গ্রামের মো. মোস্তফার ছেলে।  পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত প্রথম আসামীর স্বীকারোক্তি এবং তার হেফাজতে থাকা একটি শপিং ব্যাগের ভেতর হতে নিজ হাতে বের করে দেয়া মতে ৩.৪ কেজি ওজনের একটি হাতির দাঁত উদ্ধার করা হয়।যার আনুমানিক মূল্য ২৫ লাখ টাকা।

আটকদের স্বীকারোক্তি মতে র‌্যাব আরও জানায়,  আসামীরা বন্যপ্রাণী হাতির দাঁত কেনাবেচা চক্রের সক্রিয় সদস্য।  আসামীরা পরস্পর যোগসাজশে একে অপরের সহযোগিতায় দীর্ঘদিন যাবত  হাতির দাঁত উপর্যুক্ত অনুমতি ব্যতিত অবৈধভাবে নিজ দখলে রেখে চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ক্রয়-বিক্রয় করতেন।

আসামীদের কাছ থেকে উদ্ধারকৃত আলামত সংক্রান্ত পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্যে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।