২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

স্বাস্থ্যপরীক্ষার মূল্যতালিকা টাঙানোর হাইকোর্টের নির্দেশ কেউই মানছে না। কেবল হাতেগোনা কয়েকটি ক্লিনিক-হাসপাতাল আদেশ পালন করছে। এখনও স্বেচ্ছাচারিতা চলছে এ খাতে, অথচ কাউকে কোনো শাস্তি দেয়া হচ্ছে না।

সারাদেশে বৈধ ক্লিনিক, ডায়াগনস্টিক ও হাসপাতালের সংখ্যা ২৫ হাজার। এসব প্রতিষ্ঠানে প্রতিদিন লাখো মানুষ সেবা নিতে যান।

একই আল্ট্রাসনোগ্রাম পরীক্ষার ফি ঢাকা মেডিকেলে ১১০, বারডেমে ৯০০, ল্যাবএইডে ১৮০০ ও ইউনাইটেড হাসপাতালে গিয়ে তা হয় দুই হাজার টাকা। রোগীরাও বাধ্য এ টাকায় পরীক্ষা করতে।

এসব বিবেচনায় নিয়ে চলতিবছরের ২৪ জুলাই বেসরকারি ক্লিনিক, হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে স্বাস্থ্য পরীক্ষার মূল্য তালিকা টাঙানোর নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট। এরপর কিছু হাসপাতাল তালিকা টাঙালেও বেশিরভাগই মানেনি।

হাসপাতাল সংশ্লিষ্টরা বলছেন, তালিকা টাঙানোর আগে, স্বাস্থ্যকেন্দ্রের মান অনুযায়ী মূল্য ঠিক করা জরুরি। কারণ বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের জন্য কোনো নিয়ম নীতিই নেই।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানালো, তিন ক্যাটাগরিতে ভাগ করে শিগগির মূল্য তালিকা প্রকাশ করা হবে।