২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

উৎসবের মধ্যে দিয়ে নতুন পাঠ্যবই হাতে পেলো সীতাকুণ্ড থানা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার আলো জ্বালাবো ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়বো – এ স্লোগানকে সামনে রেখে নতুন বছরের প্রথমদিন সীতাকুণ্ড থানা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় বই উৎসব।এ বিদ্যালয়টি  উপজেলা ডিঙ্গিয়ে ২০১৭ সালে  চট্টগ্রাম জেলা পর্যায়ে সেরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে নির্বাচিত হওয়ায় বরাবরের মতো এখানে ছুটে আসেন সীতাকুণ্ড উপজেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্তারা। তাই এবারও প্রশাসনের শীর্ষ কর্তাদের উপস্থিতিতে বই উৎসব বেশ প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে।

বই উৎসবে বক্তব্য রাখছেন সীতাকুণ্ড উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম আল মামুন

পাঠ্যবই বিতরণের আগে সংক্ষিপ্তকারে বিদ্যালয়ের বেগম সুফিয়া কামাল কক্ষে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। এতে প্রধানঅতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সীতাকুণ্ড উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম আল মামুন।বই উৎসবের উদ্বোধনীতে এসএম আল মামুন বলেন, বছরের প্রথম দিন সারাদেশের শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যে নতুন পাঠ্যবই পাবে আওয়ামী লীগ সরকারের আগের কোনো সরকার কল্পনাও করেনি কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বেই তা কেবল  সম্ভব হয়েছে।শিক্ষাক্ষেত্রেসহ  দেশের সামগ্রিক উন্নয়নে আওয়ামী লীগ সরকারের কোনো বিকল্প নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন। দেশের মানুষ শেখ হাসিনার উন্নয়নের প্রতি প্রচণ্ড আস্থা ও বিশ্বাসী হয়ে জনগণ আবার আওয়ামী লীগ সরকারকে ক্ষমতার মসনদে বসিয়েছে।

বই উৎসবে বক্তব্য রাখছেন সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন রায়

বই উৎসবে প্রধান আলোচক ছিলেন সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন রায়। তিনি বলেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কোমলমতি শিশুদের হাতে পাঠ্যবই পৌঁছে দেয়া বর্তমান সরকারের একটি সাফল্য। আগামীতে এ ধারা অব্যাহত রাখতে সংশ্লিষ্ট সকলের সহায়তা চান তিনি। একই সঙ্গে বিনামূল্যে বিতরণের এসব পাঠ্যবই বাজারে বিক্রি হলে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার হুশিয়ারি দেন।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুলতানা ইয়াসমিন। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো. রফিকুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন সীতাকুণ্ড সরকারি মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ জরিনা আখতার, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ মামুন, উপজেলা শিক্ষা অফিসার  মোহাম্মদ নুরুচ্ছোফা, সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আলাউদ্দীন,সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার তাজমেরি খাতুন, সীতাকুণ্ড পৌরসভার কাউন্সিলর জুলফিকার আলী মাসুদ শামীম, বিদ্যালয়ের শিক্ষক অভিভাবক সমিতির সভাপতি রেজাউল করিম বাহার। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবের সভাপতি সেকান্দর হোসেন , সাধারণ সম্পাদক সৌমিত্র চক্রবর্তী, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য রতন মিত্র ও অমর শীল।অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন সহকারি শিক্ষিকা জোবেদা ইয়াছমিন।

আলাচনাশেষে প্রধানঅতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ শিক্ষার্থীদের হাতে পাঠ্যবই তুলে দেন। বছরের প্রথম দিন ঝকঝকে পাঠ্যবই হাতে পেয়ে দারুণ খুশি ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা।