[bangla_date] || [english_date]

নিজস্ব প্রতিবেদক *

প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন উপাচার্য(ভারপ্রাপ্ত) ড. শরীফ আশারাফউজ্জামান।

বাংলাদেশ অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিল ও সাউদার্ন ইউনিভার্সিটি ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি এসিউরেন্স  সেলের(আইকিউএসি) উদ্যোগে ‘প্রিপারেশন ফর অ্যাক্রেডিটেশন : ডকুমেন্টেশনস এন্ড এভিডেন্স’ শীর্ষক  কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্প্রতি স্থায়ী ক্যাম্পাস বায়েজিদ আরেফিন নগরে আয়োজিত এ কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপাচার্য(ভারপ্রাপ্ত) ড. শরীফ আশারাফউজ্জামান। কর্মশালার কিনোট স্পিকার ও সভাপতি ছিলেন বাংলাদেশ অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিলের সদস্য অধ্যাপক ড. এস. এম. কবীর এবং অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিলের পরিচালক (অ্যাক্রেডিটেশন) অধ্যাপক নাসির উদ্দীন আহাম্মেদ। আরও উপস্থিত ছিলেন উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক সরওয়ার জাহান, আইকিউএসি এর পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. শওকতুল মেহের, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধানগণ, শিক্ষক সহ কর্মকতার্রা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য(ভারপ্রাপ্ত) ড. শরীফ আশারাফউজ্জামান বলেন, অ্যাক্রেডিটেশন অর্জনে প্রস্তুতির অংশ হিসেবে আজকের এই কর্মশালার আয়োজন অত্যন্ত ফলপ্রসূ হবে বলে আমার প্রত্যাশা । সাউদার্ন ইউনিভার্সিটিকে এগিয়ে নিতে বাংলাদেশ অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিলের সহযোগিতার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা। অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিলের পরামর্শ ও নির্দেশনা অনুযায়ী যদি আমরা কাজ করতে পারি তাহলে অ্যাক্রেডিটেশন অর্জনে আর কোনো বাধা থাকবে না। আর এ উদ্যোগ সফল করতে বাংলাদেশ অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিল ও শিক্ষক—কর্মকতার্দের প্রতি আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করছি।

সভাপতির বক্তব্যে প্রফেসর ড. এস. এম. কবীর বলেন, সাউদার্ন ইউনিভার্সিটির অ্যাক্রেডিটেশন অর্জনের প্রচেষ্টাকে স্বাগত জানাচ্ছি। এইজন্য বাংলাদেশ অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিলের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি। ইউনিভার্সিটির শিক্ষক ও কর্মকতার্গণ অক্লান্ত পরিশ্রম ও প্রচেষ্টার মাধ্যমে অ্যাক্রেডিটেশনের যে—প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন, তা সত্যি প্রশংসনীয় ও আশাব্যঞ্জক।

আইকিউএসি’র পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. শওকতুল মেহের সমাপনী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে কর্মশালার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।