১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় অভিযান চালিয়ে ৫টি ওয়ান শুটারগানসহ মো. রিয়াদ নামে এক অস্ত্র ব্যবসায়ীকে   গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।রবিবার (১৯ জুন) দিবাগত রাত দুইটার দিকে তাকে আটক করা হয়।আটক রিয়াদ চট্টগ্রামের  লোহাগাড়ার পদুয়া গ্রামের মো. মোজাফ্ফর এর ছেলে।

র‌্যাব-৭  চট্টগ্রামের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল এম এ ইউসুফ বিষয়টি নিশ্চিত করে চাটগাঁর বাণীকে জানান, বেশ কিছুদিন যাবৎ বিভিন্ন মাধ্যম হতে তথ্য পাওয়া যাচ্ছিল যে, চট্টগ্রামের লোহাগাড়া এলাকায় একটি অস্ত্রের সিন্ডিকেট গড়ে ওঠেছে, যারা বিভিন্ন কাজে অস্ত্রগুলো ব্যবহার করে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি লোহাগাড়া থানাধীন পদুয়া এলাকায় অস্ত্র ও মাদক ব্যবসায়ী মো. রিয়াদ(২৪) তার বসত ঘরে মাদকদ্রব্য এবং অবৈধ অস্ত্র ও গোলাবারুদ বিক্রির উদ্দেশ্যে মজুদ করে রেখেছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে  রবিবার (১৯ জুন ) গভীর রাতে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর একটি আভিযানিক দল ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে উক্ত সিন্ডিকেটের মূলহোতা রিয়াদকে আটক করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে  আটককৃত  আসামীর স্বীকারোক্তি মতে, নিজ বসতঘরের টিনশেড কক্ষের ভেতর মাটি খুঁড়ে প্লাস্টিকের বস্তা থেকে ৫টি ওয়ানশুটারগান, ৩টি কার্তুজ এবং ১টি সুইচ গিয়ার চাকু উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব অধিনায়ক  আরও জানায়, এসব অস্ত্র তারা মূলত ৩ ধরনের কাজে ব্যবহার করত। প্রথমত মাদকদ্রব্য কেনাবেচার সময় বেকআপ দেয়া, দ্বিতীয়ত তাদের প্রতিপক্ষ মাদক ব্যবসায়ীদের ভয় দেখানো বা ফাঁসানোর জন্য এমনকি নির্বাচন বা বিভিন্ন উপলক্ষ্যে অস্ত্রগুলো ভাড়া দিত এছাড়া নিজেরাও ভাড়াটে হিসেবে কাজ করত।

জিজ্ঞাসাবদে রিয়াদ আরও কয়েকজনের নাম বলেছে তাদেরকেও ধরার জন্যে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান এ র‌্যাব কর্মকর্তা।

আটক আসামী এবং উদ্ধারকৃত অস্ত্র ও গোলাবারুদ সংক্রান্তে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।