১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বান্দরবানের তুমব্রু সীমান্তের নোম্যানস ল্যান্ডে মিয়ানমারের মর্টার শেল বিস্ফোরণে এক রোহিঙ্গা কিশোর নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও পাঁচ রোহিঙ্গা নাগরিক।

শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের তুমব্রু ও কোণাপাড়া সীমান্তের শূন্যরেখায় থাকা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের ক্যাম্পের ভেতর একটি গোলা পড়ে বলে নিশ্চিত করেছেন কোণাপাড়া ক্যাম্পের কমিউনিটি নেতা দ্বীন মোহাম্মদ।

জানা গেছে, নিহত রোহিঙ্গা কিশোরের নাম মো. ইকবাল (১৫)। আহতদের মধ্যে ৪জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- জাহিদ আলম (৩০), নবী হুসেইন (২১), মো. আনাস (১৫) ও সাদিয়া (৮)।

দ্বীন মোহাম্মদ আরও জানান, বাংলাদেশের সীমান্তের অভ্যন্তরে আরও একটি গোলা পড়েছে। তবে সেটা ঠিক কোথায় পড়েছে তা এখনও নিশ্চিত নয়।

নাইক্ষ্যংছড়ি থানার এসআই মিঠুন সিংহ জানান, মর্টারশেলটি সীমান্তে বিস্ফোরিত হওয়ার সংবাদ শুনেছি। তবে এ ঘটনায় আহত বা নিহতের সংখ্যা নিশ্চিত করা যাচ্ছে না। বিস্তারিত পরে জানানো যাবে।

তবে তাৎক্ষণিকভাবে এ বিষয়ে বিজিবি বা উপজেলা প্রশাসনের কোনো কর্মকর্তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এর আগে শুক্রবার দুপুরে তুমব্রুর চাকমাপাড়া সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণে এক যুবক আহত হন। মাইনের আঘাতে তার একটি পা বিচ্ছিন্ন যায়।

উল্লেখ্য, গত ৩ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ৯টায় মিয়ানমারের যুদ্ধবিমান থেকে ছোড়া দুটি গোলা বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম এলাকায় পড়ে। তার আগে ২৮ আগস্ট বিকাল ৩টার দিকে মিয়ানমার থেকে নিক্ষেপ করা একটি মর্টারশেল অবিস্ফোরিত অবস্থায় ঘুমধুমের তুমব্রু উত্তর মসজিদের কাছে পড়ে।

এসব ঘটনায় তিন দফায় বাংলাদেশে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।