[bangla_date] || [english_date]

পবিত্র রমজান মাসের শুরু থেকে সাবেক মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ মনজুর আলমের এইচ এম ভবন অডিটরিয়ামে বাদ আছর থেকে ইফতার করতে হাজির হন হাজারের অধিক রোজাদার। এতিম থেকে শুরু থেকে হতদরিদ্র সহ নানা  শ্রেণি-পেশার রোজাদার। সাবেক মেয়র মোহাম্মদ মনজুর আলমের সাথে থাকে তাঁর পুত্র ও নাতিরা। প্রতিদিনের ইফতার পূর্ব খতমে কোরান, দোয়া কেয়াম, মিলাদ মাহফিল ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। উপস্থিত হাফেজ, আলেম ও ওলামারা পবিত্র কোরআন তেলোয়াত ও খতম সারেন। আজ শনিবার (৬ এপ্রিল) ইফতারেও আগের মতই হাজার খানেক রোজাদার ইফতার করেছেন। নাজাতের শেষ ১০ দিনের এই দিনটি ছিল শবে কদরের দিন। এ রাতে ইবাদত বন্দেগীতে রাত কাটান সাবেক মেয়র মোহাম্মদ মনজুর আলম। আমলনামায় অধিক ফজিলতের প্রত্যাশায় রমজানের শেষ সময়ে প্রতিদিন ঈদ উপহার, দান খয়রাত, মাজার জেয়ারত অব্যাহত রাখেন এই মানবিক সমাজ সেবক। আজ ইফতার পূর্ব রোজাদারদের উদ্দেশ্যে সাবেক মেয়র মনজুর আলম বলেন, পবিত্র রমজান বছরে একমাস। এ মাসের একটি রজনী শবে কদর। এই একটি রাত্রি হাজার মাসের সমান। এ রজনীতে গোনাহ মাফ চাওয়ার অপূর্ব সুযোগ আল্লাহ হাজির করেছেন তার বান্দাদের সামনে। এ রাত্রির ইবাদত আল্লাহ তায়ালা কবুল করার পূর্ব ঘোষণা দিয়েছেন। মনজুর আলম বলেন, তাঁর যাবতীয় সেবা আল্লাহর সন্তোষ্টির জন্য। প্রতিদিনের মত আজকের ইফতারেও মোস্তফা হাকিম পরিবারের সদস্য মোহাম্মদ নিজামুল আলম, সরোয়ার আলম, ফারুক আজম, সাইফুল আলম, সাহিদুল আলম, অধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলমগীর, নেছার আহমদ, সাবেক অধ্যক্ষ বাদশা আলমসহ অন্যরা ছিলেন। মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা ছৈয়দ ইউনুচ রজভী।