২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

দেশকে একটা সিস্টেমে নিয়ে এসেছেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, আমরা দেশকে একটা সিস্টেমে নিয়ে এসেছি। যেই আসুক, আর কেউ কোনো বাধা দিতে পারবে না। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে এবং এগিয়ে যাবে। এই এগিয়ে যাওয়া আর কেউ থামাতে পারবে না।

রোববার (২ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে ২০১৫-২০১৬ অর্থবছরে ‘জাতীয় রপ্তানি ট্রফি’ বিতরণ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, আমার প্রতিজ্ঞাই ছিল বাংলাদেশকে এমনভাবে গড়ে তুলবো, বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের একটি মানুষ গেলেও যেন তারা অবাক হয়ে তাকায়। ইনশাল্লাহ, আমরা তা করতে পেরেছি। বাংলাদেশ এখন বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। বাংলাদেশকে আর কেউ অবহেলার চোখে দেখে না।

গোটা বাংলাদেশ যেন উন্নত হয় সেদিকে লক্ষ্য রেখে সরকার কাজ করে যাচ্ছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসারে সরকারের নানামুখী উদ্যোগের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণের যে সুযোগ আমরা তৈরি করে দিয়েছি সেটা কাজে লাগিয়ে আপনারা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন। আমাদের সরকার ব্যবসা-বাণিজ্য করতে ক্ষমতায় আসে না। আর আমিতো ব্যবসাটা বুঝিও না। আমরা সরকারে এসে ব্যবসা-বাণিজ্যটা যেন ব্যবসায়ীদের জন্য সহজ হয়, সে ব্যবস্থাটা করে দেই। আমরা সবসময় চাই, আমাদের দেশটা এগিয়ে যাক।সারাদেশে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল করে দেওয়ার কথাও পুনর্ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী।

শিল্পায়নের ওপর সরকার গুরুত্ব দিয়েছে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, শিল্পায়ন ছাড়া কোনো জাতির অর্থনৈতিক উন্নতি হয় ন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি শুধু এটুকুই বলবো, আজকে আমাদের অর্থনীতি যথেষ্ট মজবুত। আমাদের উন্নয়ন প্রকল্পে নব্বই ভাগ নিজস্ব অর্থায়নে বাস্তবায়ন করার সক্ষমতা অর্জন করেছি।

দেশকে এগিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, ২০২১, ২০৪১ এবং ২১০০ সালের জন্য ডেলটা প্ল্যান হাতে নিয়েছি। এই ডেলটা প্ল্যান নেদারল্যান্ড সরকারের সঙ্গে যৌথভাবে করবো। যার ফলে বাংলাদেশের এই এগিয়ে যাওয়া আর কেউ থামাতে পারবে না।

নতুন নতুন রপ্তানি বাজার খোঁজার আহ্বান জানিয়ে ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা দেশ-বিদেশে ঘোরেন, আপনারাও খুঁজে বের করেন কোন দেশের কোন কোন পণ্যটা আমাদের দেশে উৎপাদন করে সেটা রপ্তানি করতে পারি। বাজারকে খুঁজে নেওয়া এবং পণ্যটাকে তৈরি করা, সেটাও কিন্তু আপনাদের একটা দায়িত্ব।

ব্যবসায়ীদের সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, যদি কোনো রকম সহযোগিতা লাগে অবশ্যই সরকার হিসাবে আমরা তা করবো। যদিও সময় এখন সীমিত। আগামীতে নির্বাচন, কী হবে বলতে পারি না! যতক্ষণ আছি ততক্ষণ যা যা প্রয়োজন সেটা করে দিতে পারবো, সেইটুকু কথা দিতে পারি।