[bangla_date] || [english_date]

বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের মাঝে বই উৎসব দেশে শিক্ষা বিপ্লব ঘটিয়েছে বলে মন্তব্য করেছে চট্টগ্রাম সিটি মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিচ্ছেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী

সোমবার (১জানুয়ারি)সকালে নগরীর চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন মিউনিসিপ্যাল মডেল স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে আয়োজিত বই উৎসবে চসিকের ৫২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১০ জন করে শিক্ষার্থী বই গ্রহণ করেন। এবছর চসিকের প্রায় ৬০ হাজার শিক্ষার্থী বিনামূল্যে প্রায় আড়াই লক্ষ বই পাবে।

উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চসিক মেয়র রেজাউল বলেন, বই উৎসব দেশে শিক্ষা বিপ্লব ঘটিয়েছে। বছরের প্রথম দিন বই পেয়ে শিক্ষার্থীরা হয়েছে বিদ্যালয়মুখী। বিশ্বের বুকে কোটি বই বিতরণের এ উদযাপনের মাধ্যমে বিশ্বে অনন্য নজির স্থাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশের কোটি শিক্ষার্থী-অভিভাবকের পক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এই বিদ্যোৎসাহী উদ্যোগের জন্য ধন্যবাদ জানাতে চাই।

উৎসবে শিক্ষার্থীদের সমাজসচেতন নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে শিক্ষক-অভিভাবকদের আহ্বান জানিয়ে মেয়র বলেন, আমরা শিক্ষার্থী থাকা অবস্থায় সপ্তাহে একদিন সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের জন্য ক্লাস বরাদ্দ থাকতো৷ এখন সমাজে সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের গতি কিছুটা কমে গেছে মনে হচ্ছে৷ সংস্কৃতিহীন ব্যক্তি আর পশুতে কোনো তফাৎ নেই। এজন্য শিশুদের মাঝে ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব ও প্রতিভা বিকাশে সংস্কৃতিচর্চা বাড়াতে হবে। শিক্ষার্থীদের গড়তে হবে দায়িত্ববান নাগরিক হিসেবে।

চসিক সচিব খালেদ মাহমুদের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন চসিকের কাউন্সিলর শিক্ষা বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড.নিছার উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, স্বাস্থ্য বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি জহর লাল হাজারী, সমাজকল্যাণ স্থায়ী কমিটির সভাপতি আবদুস সালাম মাসুম, রুমকি সেনগুপ্ত, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল হাশেম, শিক্ষা কর্মকর্তা রাশেদা আক্তার, চসিকের উপ-সচিব আশেকে রসুল টিপু, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি চৌধুরী ফরিদ, চসিক মিউনিসিপ্যাল মডেল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ সাহেদুল কবির চৌধুরীসহ চসিকের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

চসিকের বই উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মো রেজাউল করিম চৌধুরী।