[bangla_date] || [english_date]

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে সপরিবারে গণভবনে সাক্ষাৎ করেছেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে বুধবার (২০ মার্চ) গণভবনে সাক্ষাৎ করেছেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

সাক্ষাৎকালে মেয়র জনগণের জন্য সুস্থ বিনোদন প্রসারের জন্য প্রতিটি ওয়ার্ডে খেলার মাঠ ও পার্ক গড়ার পরিকল্পনা ব্যক্ত করে এ কার্যক্রমের অগ্রগতি তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে। মেয়র একটি পার্ক নির্মাণের জন্য ভূমি বরাদ্দ চাইলে প্রধানমন্ত্রী ভূমি বরাদ্দের আশ্বাস দেন।

এসময় মেয়র রেজাউল দায়িত্বপালনকালের তিন বছরের অর্জনের উপর প্রণীত ‘উন্নয়ন প্রতিবেদন’ প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করেন। প্রধানমন্ত্রী বইটি পড়ে ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতের পাশাপাশি চট্টগ্রামের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে জনগণের সম্পৃক্ততা বাড়াতে ‘উন্নয়ন প্রতিবেদন’ বইটি আরো বেশি জনগণের কাছে প্রচারের জন্য মেয়রকে নির্দেশ দেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে চট্টগ্রামে চলমান কার্যক্রম সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেন মেয়র। ২০৩০ সালের মধ্যে দেশে দেড়কোটি নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টির যে প্রতিশ্রুতি আওয়ামী লীগ দিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক গৃহিত চট্টগ্রামের  বিভিন্ন প্রকল্পের কারণে এ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে চট্টগ্রামও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে আশা প্রকাশ করেন মেয়র রেজাউল করিম। চট্টগ্রামকে ঘিরে প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগগুলো বাস্তবায়িত হলে চট্টগ্রাম বিশ্ববাণিজ্যের হাব হয়ে উঠবে এবং বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন ও ব্যাপক কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে চট্টগ্রাম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে জানান মেয়র। চট্টগ্রামের উন্নয়নকে প্রাধিকার দেয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চট্টগ্রামের জনগণের পক্ষে মেয়র ধন্যবাদ জানান। এসময়ে মেয়রের সাথে ছিলেন মেয়রের পরিবারের সদস্যবৃন্দ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মেয়র রেজাউল দায়িত্বপালনকালের তিন বছরের অর্জনের উপর প্রণীত ‘উন্নয়ন প্রতিবেদন’ হস্তান্তর করছেন।