[bangla_date] || [english_date]

একতরফা তফসিল ঘোষণার প্রতিবাদ, সরকারের পদত্যাগ, নির্বাচনকালীন কেয়ারটেকার সরকার গঠনসহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে ফের অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। বিএনপির সঙ্গে মিল রেখে মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) ভোর ৬টা থেকে বুধবার (১৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত টানা ৩৬ ঘণ্টা অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে দলটি।

রবিবার (১০ ডিসেম্বর) এক বিবৃতিতে দলটির ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা এ টি এম মাছুম এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

এ টি এম মাছুম বলেন, দেশকে ধ্বংসের হাত থেকে উদ্ধারের লক্ষ্যে একতরফা তফসিল ঘোষণার প্রতিবাদ, সরকারের পদত্যাগ, নির্বাচনকালীন কেয়ারটেকার সরকার গঠনসহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে সারাদেশে আগামী ১২ ডিসেম্বর সকাল ৬টা থেকে থেকে ১৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত টানা ৩৬ ঘণ্টা অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করছি।

ঘোষিত কর্মসূচি শান্তিপূর্ণভাবে সফল করে আন্দোলনকে চূড়ান্ত লক্ষ্যে নিয়ে যাওয়ার জন্য জামায়াতে ইসলামীর সর্বস্তরের নেতাকর্মী ও দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

এর আগে, বিকেলে ১২ ডিসেম্বর থেকে টানা ৩৬ ঘণ্টার অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। একই সঙ্গে ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবসেরও কর্মসূচি ঘোষণা করেন তিনি।

এর মধ্যে ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ সারাদেশের সকল দলীয় কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে, ঢাকা মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীরা শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবসে কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ দলের সকল কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে, সকাল ৮টায় বিএনপি নেতাকর্মীরা জাতীয় সমৃতিসৌধে মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন, এরপর বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন।

এ ছাড়া শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা করবে দলটি।