[bangla_date] || [english_date]

জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনে জালিয়াতি শাস্তিযোগ্য অপরাধ তাই জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনের ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন জরুরি বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মো রেজাউল করিম চৌধুরী।
রবিবার ( ২৬ নভেম্বর)নগরীর থিয়েটার ইন্সটিটিউটে আয়োজিত জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন বিষয়ক আইন ও বিধির প্রয়োগের উপর প্রশিক্ষণ কর্মশালায় এ মন্তব্য করেন তিনি। কর্মশালায় অংশ নেয়া চসিকের কাউন্সিলরবৃন্দ ও জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনের দায়িত্বে থাকা চসিকের কর্মীরা বিভিন্ন সমস্যা ও পরামর্শ তুলে ধরেন৷
প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র বলেন, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনের সাথে জাতীয় নিরাপত্তার বিষয় জড়িত। কারণ এই নিবন্ধনের তথ্যের ভিত্তিতে জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্টসহ অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ণ সরকারি কাজ সম্পন্ন হয়। বিশেষ করে অনেক সময় প্রভাবশালী ব্যক্তিরা ভূমি দখল, চাকরির বয়স বৃদ্ধিসহ নানা স্বার্থে জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধনে জালিয়াতির চেষ্টা করে। এ ধরনের জালিয়াতি শাস্তিযোগ্য অপরাধ তাই এধরনের যে কোন অপচেষ্টা প্রতিহত করতে হবে।
সভায় মুখ্য আলোচক রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. রাশেদুল হাসান বলেন, সঠিক জন্ম নিবন্ধন বাল্যবিবাহ ঠেকাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে৷ আবার মৃত্যু নিবন্ধনের সাথে সম্পত্তি বন্টনের বিষয়টি জড়িত। এছাড়া জালিয়াতি করে অন্য কোনো দেশের নাগরিক যাতে বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে নিবন্ধন করতে না পারে সে ব্যাপারেও এ নিবন্ধন জরুরি ভূমিকা রাখে৷ তাই, এ নিবন্ধনে জড়িত কর্মীদের সতর্ক থাকতে হবে। পাশাপাশি সাধারণ মানুষরা যাতে নিবন্ধন করতে গিয়ে ভোগান্তিতে না পড়ে সে ব্যাপারেও সতর্ক থাকতে হবে৷
কর্মশালায় আরো বক্তব্য রাখেন ডেপুটি রেজিস্ট্রার জেনারেল ড. আবু নছর আবদুল্লাহ, চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মুহম্মদ তৌহিদুল ইসলাম, চসিকের জন্ম ও মৃত্যু বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও কাউন্সিলর মো. ইলিয়াস, সচিব খালেদ মাহমুদ। উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক, হাসান মুরাদ বিপ্লব, সলিম উল্লাহ বাচ্চু, মো. মোরশেদ আলম, মো. নুরুল আমিন, গাজী মো. শফিউল আজিম, আবদুল মান্নান, ওয়াসিম উদ্দিন চৌধুরী, আবদুস সালাম মাসুম, জাফরুল হায়দার চৌধুরী এবং আনজুমান আরা,মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ড. মো. ইমাম হোসেন রানা, উপসচিব আশেকে রসুল টিপু।