২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

‘মায়ের দুধপান সুস্থ জীবনের বুনিয়াদ’ এ প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে কক্সবাজারে সপ্তাহব্যাপি শুরু হয়েছে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ। কক্সবাজার সিভিল সার্জনের তত্বাবধায়নে ও ইউনিসেফ এর সহযোগিতায় মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ উপলক্ষে নানান আয়োজন করা হয়েছে।  বুধবার  (১ আগস্ট) সকাল ৯টায় সিভিল সার্জন প্রাঙ্গণ থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়।  র‌্যালিটি প্রধান প্রধান সড়ক পদক্ষিণ করে নার্সিং ইনস্টিটিউটে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সিভিল সার্জন ডা. আবদুস সালাম, সহকারি সিভিল সার্জন ডা. মহিউদ্দিন মোহাম্মদ আলমগীর, সদর হাসপাতালের গাইনী বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. শিরিন আক্তার জাহান, ডিজিএইচএস কো অডিনেশন সেন্টারের কো-অর্ডিনেটর বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ আলী, ইউনিসেফ এর নিউট্রিশন বিভাগের কো অর্ডিনেটর ইনগো নেউ ও হেনরি সেবোলিকা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, শিশুর জন্য মায়ের দুধের বিকল্প নেই। জন্মের পর থেকে ৬ মাস পর্যন্ত শুধুমাত্র মায়ের দুধই শিশুর একমাত্র খাবার। কারণ মায়ের দুধ সকল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। বিকাশ ঘটে শিশুর শারীরিক, মানসিক ও বুদ্ধির। ওই সময় পানি বা অন্য কোনো খাবার দেয়া যাবে না। তার মধ্যে গুড়া দুধ খাওয়ালে শিশুর ডায়রিয়া, নিউমোনিয়ায় মৃত্যুর ঝুঁকি ১৪ গুণ বৃদ্ধি পায়। ৬ মাসের পর থেকে ঘরে তৈরি পরিপূরক বাড়তি খাবার খাওয়াতে হবে। তখন শিশুকে প্রতিদিন ১টি করে আমিষ জাতীয় খাবার খাওয়ানো প্রয়োজন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিভিল সার্জন অফিসের কর্মকর্তা ডা. রঞ্জন বড়ুয়া রাজন, মো. রফিক, উচাপ্রু, মো. ওসমান, ইউনিসেফ এর ইমার্জেন্সী নিউট্রেশন অফিসার আবু আহমদ আবদুল্লাহ, এসিএফ এর প্রোগ্রাম ম্যানেজার রায়হান মোস্তাকসহ এনজিও ও স্বাস্থ্য বিভাগের প্রতিনিধিরা।

এর আগে সিভিল সার্জন ডা. আবদুস সালাম ফিতা কেটে সিএস প্রাঙ্গনে মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ উপলক্ষে মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। মেলায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৭টি স্টল স্থান পায়। স্টলসমূহ হলো-এসএআরপিবি, সেড, এসিএফ, কনসার্ন, টেরেডেস হোমস ফাউন্ডেশন, ইউনিসেফ। স্টলগুলোতে আগামী ৭ আগস্ট পর্যন্ত শিশু ও মায়েদের নানা সেবা ও তথ্য প্রদান করা হবে।