১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ২৬শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বর্তমান সরকার এক-এগারোর অবৈধ সরকারের চেয়েও খারাপ বলে অভিযোগ করেছেন । তিনি বলেন, এক-এগারোর অবৈধ সরকার খালেদা জিয়াকে কারাবন্দি করেছিল। তারা তাকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়েছিল। সেই সরকারের চেয়েও খারাপ বর্তমান ‘ফ্যাসিস্ট’ সরকার।

বুধবার (১৫ আগস্ট) দুপুরে ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে আয়োজিত এক মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব মন্তব্য করেন।

বিএনপির কারাবন্দি চেয়ারপারসনের ৭৪তম ‘জন্মদিন’ উপলক্ষে এবং তার কারামুক্তি, রোগমুক্তি ও দীর্ঘায়ু কামনা করে এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

বর্তমান সরকার মানুষের সব অধিকার দখল করেছে উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে এ সরকারকে বাধ্য করতে হবে। এ দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় সংসদ ভেঙে দিয়ে নিরপেক্ষ সরকার প্রতিষ্ঠা করে নির্বাচন পরিচালনা করতে সরকারকে বাধ্য করতে হবে।

তিনি বলেন, রাজনৈতিক দল হিসেবে আমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য হচ্ছে গণতন্ত্রের মাতা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা। গণতন্ত্রকে মুক্ত করার জন্য, দেশের মানুষের অধিকারকে পুনরায় ফিরিয়ে আনার জন্য আমাদের প্রাণবাজি রেখে লড়াই করতে হবে। এ সংগ্রামে আমাদের জয়ী হতে হবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আজকে এমন দিনে, এমন এক মুহূর্তে আমরা খালেদা জিয়ার জন্মদিনে দোয়া করার জন্য উপস্থিত হয়েছি, যখন তিনি এই ফ্যাসিস্ট স্বৈরাচারী সরকারের চক্রান্তে কারারুদ্ধ রয়েছেন। তিনি শুধু একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী নন, তিনি গণতান্ত্রিক আন্দোলনের কয়েকজন ব্যক্তির মধ্যে একজন। তিনি সারাজীবন গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছেন।

শিক্ষার্থীদের অরাজনৈতিক আন্দোলনকে নির্মমভাবে দমন করেছে এ সরকার উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই দমনপীড়ন থেকে শিক্ষার্থীদের গ্রেফতার করেছে, তুলে নেয়া হচ্ছে। মেয়েদেরও রেহাই দেয়া হচ্ছে না।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী প্রমুখ।