১৯শে আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ || ৪ঠা অক্টোবর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিদল পাঠাতে গেমিং চ্যাম্পিয়নশিপের আয়োজন করেছে তরুণদের পছন্দের স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ইনফিনিক্স। বৈশ্বিক গেমিং প্লাটফর্ম মোবাইল লেজেন্ডস: ব্যাং ব্যাং (এমএলবিবি) এর সাথে যৌথ উদ্যোগে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

সম্প্রতি গুলশানে অবস্থিত বাংলাদেশ শ্যুটিং স্পোর্টস ফেডারেশনের কনভেনশন হলে এমএলবিবি বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ (এমবিসি) এর গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হয়। শিরোপা জিতে নেয়ার জন্য হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে সেরা দুই দল এমএলটি সিআর এবং ওরিয়েন্টাল ফিনিক্স।

ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম রাউন্ডের এই গ্র্যান্ড ফিনালেতে নিজেদের আসন নিশ্চিত করার জন্য, ন্যাশনাল লেভেলের এই প্রতিযোগিতায় ১০২৪ জন বাংলাদেশি গেমারের ১২৮ টি দল বিভিন্ন ধাপে লড়াই করেছে।

প্রথম রাউন্ডে শিরোপা জিতেছে ওরিয়েন্টাল ফিনিক্স। তার সাথে তারা জিতে নিয়েছে ইনফিনিক্স নোট ও হট সিরিজের নতুন সব ফোন এবং ১০০০ মার্কিন ডলার প্রাইজমানির বিরাট একটি অংশ। সেরা ৮টি টিমের মাঝে এই প্রাইজমানি ভাগ করে দেয়া হয়। চ্যাম্পিয়ন ও রানার-আপ টিমের ১৬জন সদস্য নেপালে অনুষ্ঠিতব্য পরবর্তী রাউন্ডে অংশ নেবেন।

২০১৮ সাল থেকে অনুষ্ঠিত হয়ে আসা এমএলবিবি ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ তরুণ গেমারদের জন্য বেশ আকর্ষণীয় একটি আয়োজন। বাংলাদেশ টিমকে ঐ আসরে পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে এটি প্রথম প্রচেষ্টা। বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্ম এবং ই-স্পোর্টসের উন্নতিতে কাজ করার অংশ হিসেবে এই আয়োজনে অংশ নেয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ইনফিনিক্স।

নেপালে অনুষ্ঠিতব্য প্রতিযোগিতায় জিততে পারলে বাংলাদেশের টিম যাবে মালয়েশিয়ায়। সেখানে এম ফাইভ ওয়াইল্ড কার্ড চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেবেন তারা। এখানে তাদের লড়তে হবে সারা পৃথিবী থেকে আসা আটটি অঞ্চলের চ্যাম্পিয়নদের সাথে। ‘এম ফাইভ ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ’ শিরোনামের ফাইনাল প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হবে ফিলিপাইনে।

ঢাকায় অনুষ্ঠিত এমবিসি গ্র্যান্ড ফিনালের প্রতিযোগীদের উৎসাহ দিতে সেখানে উপস্থিত ছিলেন শত শত গেমার ও গেমপ্রেমীরা। ইনফিনিক্স এবং বাংলাদেশ ইয়ুথ ডেভলেপমেন্ট অ্যান্ড ইলেকট্রনিক স্পোর্টস অ্যাসোসিয়েশন (বিওয়াইডিইএসএ)এর কর্মকর্তারা বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।