২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

রান্না ঘরের  অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে নিম্নমানের খাবার তৈরি, দাম বেশি ও  নোংরাসহ কোনোপ্রকার স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ না করায় এবং কর্মীদের হেলথ ফিটনেস সনদ না থাকায় চট্টগ্রামের আগ্রবাদস্থ বাদামতলী মোড়ে জামান’স রেস্টুরেন্টের বিরুদ্ধে মামলা রুজুপূর্বক ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে  মঙ্গলবার (২আগস্ট) নগরীতে পরিচালিত মোবাইল কোর্ট এর মাধ্যমে  এ জরিমানা আদা্য় করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মারুফা বেগম নেলী। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আগ্রাবাদসহ  বিভিন্ন এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এ সময় খাবারের নিম্নমান, দাম বেশি ও অপরিষ্কারভাবে খাবার তৈরি এবং যারা খাবার পরিবেশন করেন তাদের হেলথ ফিটনেস সনদ না থাকায় জামান’স রেস্টুরেন্টকে এ জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া অন্যান্য দোকানদারকে সচেতন করা হয়। হোটেলের সুস্থ পরিবেশ ফিরিয়ে আনার জন্য এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানান।’

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মারুফা বেগম নেলীর একই অভিযানে নাসিরাবাদ শিল্প এলাকায় রাস্তার উপর অবৈধভাবে ট্রাক পার্কিং করে জনসাধারণের চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির দায়ে ট্রাক মালিকের বিরুদ্ধে মামলা রুজু পূর্বক ৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

চসিক স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট মনীষা মহাজন পরিচালিত  মঙ্গলবার অপর এক অভিযানে নগরীর আগ্রাবাদ বাদামতলী মোড় হয়ে কমার্স কলেজ রোডের বাণিজ্যিক এলাকা সড়কের উভয়পাশের রাস্তা ও ফুটপাতের অবৈধ দোকানপাট উচ্ছেদ করা হয়। অভিযানে শেখমুজিব রোডে দেওয়ানহাট মোড় থেকে বাদামতলী মোড় পর্যন্ত রাস্তা ও ফুটপাত দখল করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালামাল রেখে চলাচলের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির দায়ে ৬ ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা রুজুপূর্বক ৭হাজার ৯শ’ টাকা  জরিমানা আদায় করা হয়। অভিযানকালে সিটি কর্পোরেশনের সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ ম্যাজিস্ট্রেটগণকে সহায়তা প্রদান করেন।