১০ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৪শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলামঞ্চে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও মুজিববর্ষ উপলক্ষে আজ রবিবার সকাল ১০টায় উৎসাহ, উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে একনৃত্য ও সঙ্গীত প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে প্রায় এক হাজার তিনশত শিক্ষার্থী এই উদ্দিপনমূলক নৃত্য ও সঙ্গীত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন। প্রতিযোগিতার উদ্বোধন ঘোষণা করেন চট্টলবীর পুত্র বোরহানুল হাসান চৌধুরী সালেহীন।

দুপুর ১টায় নৃত্য ও সঙ্গীত প্রতিযোগিতায় পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের অধ্যাপক ড. সুকান্ত ভট্টাচার্য। প্রধানঅতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের মহাসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছ। বিশেষঅতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিজয় মেলা পরিষদের সাবেক কো চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা.সরফরাজ খান বাবুল, পান্টুলাল সাহা, প্রফেসর ড. কুন্তল বড়ুয়া, বিচারক মণ্ডলীর দায়িত্বে ছিলেন সঙ্গীত বিশেষজ্ঞ মো. আব্দুর রহিম, শ্রেয়শী রায়, কাবেরী সেনগুপ্তা, মো. গোলাম মোস্তফা সুমন প্রমুখ।

প্রধানঅতিথির বক্তব্যে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের মহাসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছ বলেন, বিজয় মঞ্চে শিশুকিশোরদের নৃত্য ও সঙ্গীত প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ মানে তাদের শুপ্তপ্রতিভাকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ করে বিকাশ করা। তিনি সকল প্রতিযোগির সফলতা কামনা করে এ ধরনের সাংস্কৃতিক কার্যক্রমে অংশগ্রহণের জন্য প্রত্যেক অভিভাবককে অনুরোধ জানান।

আগামী মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার বিজয় মঞ্চে বিকাল ৩টায় মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা মহিলা স্কোয়াডের উদ্যোগে মহিলা সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধানঅতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বেগম রোকেয় পদকপ্রাপ্ত শিক্ষাবিদ হাসিনা জাকারিয়া, বিশেষ অতিথি থাকবেন সাবেক এমপি মিসেস সাবিহা মূছা, মহিলা সমাবেশের সভাপতিত্ব করবেন চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী মিসেস হাসিনা মহিউদ্দিন।