নিজস্ব প্রতিবেদক *

“SERVE TO CHANGE LIVES” স্লোগানকে সামনে রেখে দুইদিনব্যাপী (১৯ ও ২০ মার্চ ২০২১) অত্যন্ত ঝাঁকজমক ও সফলভাবে আরআই ডিস্ট্রিক্ট ৩২৮২ প্রেসিডেন্টদের (২৯২১-২২) প্রশিক্ষণ সেমিনার সিলেটের শ্রীমঙ্গলের পাঁচতারকা গ্র্যান্ড সুলতান টী রিসোর্ট এন্ড গলফ-এ অনুষ্ঠিত হয়।

১৯মার্চ বেলা সাড়ে ৩টায় রোটারি ইন্টারন্যাশনালের প্রেসিডেন্ট শেখর মেহতার ভার্চুয়াল বক্তৃতার মাধ্যমে প্রথম দিনের প্যাট সেমিনার শুরু হয়। তিনগ্রুপে বিভক্ত ক্লাব প্রেসিডেন্টদের দুই সেশনে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। রোটারি ক্লাব ও সভা পরিচালনা করা, রোটারিয়ানদের নেতৃত্ব দেয়া, বছরের পরিকল্পনা, দায়িত্ব ও ভূমিকা, নতুন সদস্যদের আকৃষ্ট ও নিয়োগ করা ইত্যাদি বিষয়ের ওপর প্রশিক্ষণ প্রদান করেন পিডিজি অধ্যাপক তৈয়ব চৌধুরী, পিডিজি দিলনাসিন মহসিন, পিপি শহিদ উদ্দিন চৌধুরী, সেশন লিডার পিপি এএইচ এম ফয়সল আহমেদ, পিপি একেএম শামিসুল হক ডিপু, পিপি মাহফুজুল হক, ফ্যালিসিটেটরস এর দায়িত্বে ছিলেন পিপি সানিউল ইসলাম ও পিপি শামিনা ইসলাম। দ্বিতীয় দিন(২০মার্চ) সকাল সোয়া ৯টা থেকে ৩টি অধিবেশনে আলাদাভাবে প্রশিক্ষণ কর্মসূচি শুরু হয়। এ তিনটি অধিবেশনে যুবনেতাদের জন্যে রোটারি কর্মসূচি, শক্তিশালী ক্লাব , মানবিক সেবা ও রোটারির পাবলিক ইমেজ নিয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন পিডিজি মঞ্জুরুল হক চৌধুরী, পিপি শহিদ উদ্দিন চৌধুরী, পিডিজি ইঞ্জিনিয়ার এম এ লতিফ। সেশন লিডার ছিলেন পিপি একেএম শামসুল হক ডিপু, পিপি এএইচ এম ফয়সাল আহমেদ ও পিডিজি দিলনাসিন মহসিন।

ফ্যালিসিটেটরস এর দায়িত্বে ছিলেন পিপি সামিনা ইসলাম, পিপি সানিউল ইসলাম ও পিপি ইঞ্জিনিয়ার কামালুর রহমান। শেষ অধিবেশনে মডারেটর ছিলেন ডিজিই আবু ফয়েজ খান চৌধুরী, সেশন লিডার ছিলেন পিপি মঞ্জুরুলুল হক চৌধুরী, আইপিডিজি এম আতাউর রহমান পীর, পিডিজি দিলনাসিন মহসিন ও পিডিজি ইঞ্জিনিয়ার এম এ লতিফ। এ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে রোটারিয়ান প্রশিক্ষণার্থীরা বেশ উপকৃত হন। সামাজিক ও মানবিকসহ যেকোনো সংগঠন দক্ষতা ও সফলতার সাথে পরিচালনা করতে হলে প্রশিক্ষণ যে অপরিহার্য- তা রোটারিয়ানেরা দারুণভাবে উপলদ্ধি করেছেন। প্যাট প্রশিক্ষণে চিটাগং হিলটাউনের প্রেসিডেন্ট, ইলেক্ট রোটারিয়ান মোহাম্মদ ইউসুফ, রোটারি ক্লাব অব চিটাগং অ্যারিসটোক্রেট এর সভাপতি ইলেক্ট মনোয়ারুল হক এফসিএমএ, রোটারি ক্লাব অব আগ্রাবাদ এর সভাপতি ইলেক্ট রোটারিয়ান শফিউল আলম পিএইচএফ, রোটারি ক্লাব অব রিভারসাইন এর সভাপতি ইলেক্ট রোটারিয়ান কাজী মো. আশেক ই ইলাহীসহ ৯জন রোটারিয়ান সেরা পার্টিসিপেন্ট হিসেবে পুরস্কৃত হন। অন্যদিকে করোনাপীড়িত অসহায় মানুষের সেবায় অ্যাম্বুলেন্স প্রদানসহ বিভিন্নভাবে যারা অবদান রাখেন তাঁদের এ অনুষ্ঠানে সম্মাননা পুরস্কারে ভূষিত করা হয়। তাঁরা হলেন, পিডিজি মঞ্জুরুল হক চৌধুরী, পিডিজি ইঞ্জিনিয়ার এম এ লতিফ, পিডিজি দিলনাসিন মহসিন, আইপিডিজি এম আতাউর রহমান পীর, ডিডিজিই আবু ফয়েজ খান চৌধুরী, পিপি মাহফুজুল হক ও পিপি সামিনা ইসলাম। প্যাটস ভ্যানু গ্র্যান্ড সুলতান হোটেল ও এর আশপাশের পাহাড় পরিবেষ্টিত প্রাকৃতিক মনোমুগ্ধকর পরিবেশ রোটারিয়ানদের মনপ্রাণ জুড়িয়ে দেয়। প্রশিক্ষণ কর্মসূচির আগে-পরে প্রকৃতির মায়াবি পরিবেশে গড়েওঠা দৃষ্টিনন্দন দৃশ্য উপভোগ করে রোটারিয়ানেরা নিদারুণ অভিজ্ঞতা অর্জন করেন- যা কখনো ভুলে যাওয়ার নয়। এছাড়া রোটারিয়ানেরা একে অন্যের সাথে আলাপচারিতার মাধ্যমে ফেলোশিপ তৈরি করেন। পরিশেষে, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও র‌্যাফেল ড্র এর মাধ্যমে প্রশিক্ষণশালার সফল পরিসমাপ্তি ঘটে।