আগামী দুই মাসের মধ্যে কক্সবাজার বিমানবন্দরে রাত্রিকালীন ফ্লাইট চালু হবে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

মো. মাহবুব আলী।

আজ মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) বিকেলে কক্সবাজার বিমানবন্দরে নবনির্মিত বর্ধিত ডমেস্টিক ডিপারচার লাউঞ্জ উদ্বোধন শেষে তিনি একথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী আরও বলেন,আগামী দুই মাসের মধ্যে কক্সবাজার বিমানবন্দরে দিবারাত্রি ফ্লাইট চালু হবে। এ লক্ষে কাজ শুরু হবে, যা আগামী দুই মাসের মধ্যে শেষ করা সম্ভব। এরপর থেকে কক্সবাজার বিমানবন্দরে ২৪ ঘণ্টা প্লেন ওঠানামা করতে পারবে।

প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বলেন, কক্সবাজার নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনেক স্বপ্ন। প্রধানমন্ত্রী চান কক্সবাজার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর প্রাচ্য ও পাশ্চাত্যের মধ্যে একটি সেতুবন্ধন তৈরি করবে।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে কক্সবাজারসহ প্রত্যেক বিমানবন্দরে রাত-দিন ২৪ ঘণ্টা প্লেন ওঠানামার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, সে লক্ষ্য বাস্তবায়নে প্রথমেই কক্সবাজার বিমানবন্দরের কাজ শুরু করা হয়েছে।

এর আগে প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী কক্সবাজার বিমানবন্দরের সামগ্রিক উন্নয়ন কাজের অগ্রগতি সরজমিনে ঘুরে ঘুরে দেখেন এবং প্রকল্প কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেন। এরপর প্রায় ৬ কোটি ৬৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ৩শ আসন বিশিষ্ট যাত্রীদের জন্য নির্মিত ডমেস্টিক ডিপারচার লাউঞ্জ পরিদর্শন করেন।

এসময় কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, আশেক উল্লাহ রফিক, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য কানিজ ফাতেমা মোস্তাক,বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মহিবুল হক, জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক সিরাজুল মোস্তফা, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফরিদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েলসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।