বৌদ্ধ ধর্ম একতা সংঘের বর্ষ পূর্তিতে সংগঠনের চট্টগ্রাম মহানগর কমিটি  বৌদ্ধ পূজা, অর্হৎ সীবলী পূজা, অষ্টপরিষ্কারসহ সংঘদান, সদ্ধর্মদেশনা ও বিশেষ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

গতকাল   রবিবার দুপুরে নগরীর সিমেন্ট হোস্টেল এলাকার একটি কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত চসিক মেয়র পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, মহামানব গৌতম বুদ্ধ সর্বজীবের কল্যাণে তাঁর ধর্ম প্রচার করেন। ধর্মপ্রচারের জন্য তিনি অত্যন্ত সুশৃঙ্খল, সুপ্রতিষ্ঠিত, ন্যায়পরায়ন সংঘ সৃষ্টি করেন। বর্তমান সংঘকেও সেই ন্যায় পরায়নতা ও সমীচিন কর্মের অনুশীলন করতে দেখা যায়। এর ব্যত্যয় যাতে না হয় সে ব্যাপারে অত্যন্ত সচেতনতার প্রয়োজন রয়েছে। এবং ভিক্ষুগণের মধ্যে সসেচেতনতা পরিলক্ষিত হয়।

এসময় তিনি আরো বলেন, হাজার বছর ধরে বৌদ্ধরা এদেশে সকল সম্প্রদায়ের সাথে সম্প্রীতির সাথে বসবাস করে আসছে। কিছু কিছু স্বাধীনতা বিরোধী উগ্র ধর্মান্ধ গোষ্ঠী দেশকে অস্থিতিশীল করতে অপপ্রচার, অপকর্মে লিপ্ত হয়ে সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে চায়। তারা সব ধার্মিকের কাছে পরিত্যাজ্য। এমনি একটি পরিত্যাজ্য গোষ্ঠী সাম্প্রতিক সময়ে ভিন্ন ধর্মালম্বীদের বিরুদ্ধে বিষেদগার করতে গিয়ে সর্বকালে সর্বশ্রেষ্ট বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ভাষ্কর্য নিয়েও ঔদ্ধত্বপূর্ণ বক্তব্য রেখেছে। আমরা তাদের চিহ্নিত করেছি, ৭১ এর মত সংঘবদ্ধ শক্তি দিয়ে গণবিরোধী এসব স্বাধীনতার শত্রুদের প্রতিহত ও  নির্মূল করা হবে।

অনুষ্ঠানে একক ধর্মদেশক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কে. শ্রী জ্যোতিসেন থের, প্রধান জ্ঞাতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাবু প্রদীপ কুমার বড়ুয়া, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রকৌশলী পুলক কান্তি বড়ুয়া, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গোলাম মোহাম্মদ চৌধুরী ও সাবেক কাউন্সিলর জিয়াউল হক সুমন। এছাড়াও বৌদ্ধ নেতৃবৃন্দসহ অসংখ্য বৌদ্ধ নর নারী এ সভায় উপস্থিত ছিলেন।