১২ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৬শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটের সাবেক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)ওয়াহিদা খানম দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিয়ে অনেকটা সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন । আজ বৃহস্পতিবার  দুপুর ১২ টার পর ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস অ্যান্ড হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়।

হাসপাতালের চিকিৎসক অধ্যাপক জাহিদ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।তাকে নেয়া হয়েছে মিরপুর সিআরপিতে।

ডা. জাহিদ ওয়াহিদার স্বাস্থ্যের বিষয়ে বলেন, ওয়াহিদা খানম এখন নিজে হাঁটাচলা, খাওয়া ও পড়ালেখা করতে পারেন। তিনি প্রায় স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন। তবে তার কিছু থেরাপির দরকার আছে। সেজন্য তাকে সিআরপিতে (পক্ষাঘাতগ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্র বা সেন্টার ফর দ্য রিহ্যাবিলিটেশন অব দ্য প্যারালাইজড) রেফার করা হয়েছে। তিনি সিআরপিতে থেরাপি নেবেন।

২ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে দুর্বৃত্তরা ইউএনওর সরকারি বাসায় ঢুকে ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা ওমর আলীকে (৭০) হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যায়।

ওয়াহিদা খানম ৩১তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তা। তার স্বামী মেসবাউল হোসেনও একই ব্যাচে একই ক্যাডারের কর্মকর্তা।