৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ১৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

মহামারী কোরানায় সংক্রমিত হয়ে চট্টগ্রামে আরেক মহিলা চিকিৎসক মৃত্যুবরণ করেন। তিনি চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালের গাইনী বিভাগের রেজিস্ট্রার । ৩৪ বছর বয়সী এ চিকিৎসকের নাম সুলতানা লতিফা জামান আইরিন ।

ডা. আইরিন এর ছবিটি তার স্বামী ও শিশুসন্তানের জন্য শুধুই স্মৃতি

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায়  আজ

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) দুপুর ১ টা ৪০ মিনিটে তিনি শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন।

চমেক হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. আফতাবুল ইসলাম ডা. আইরিনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ।

তিনি বলেন, কয়েকদিন ধরে চমেক হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন ডা. আইরিন। আজ দুপুরে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

‘করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় তার ফুসফুস বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এর আগেও মা ও শিশু হাসপাতালের আইসিউতে ভর্তি ছিলেন তিনি।’

ডা. আইরিন বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) চট্টগ্রাম শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. মাইজুল আকবর চৌধুরীর সহধর্মিণী।

তিনি চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ থেকে শিক্ষাজীবন শেষ করে চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালে কর্মজীবন শুরু করেন।

এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ও করোনা উপসর্গ নিয়ে ১১ চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে চট্টগ্রামে ।