৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দেশে ক্যান্সার রোগীদের চিকিৎসা নিশ্চিতে পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসা কেন্দ্র স্থাপন করতে যাচ্ছে সরকার। আট বিভাগের সবগুলো মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে একশো শয্যার এ চিকিৎসা কেন্দ্র করার প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। এজন্য খরচ ধরা হয়েছে প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা।

আজ মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সকালে প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে একনেক সভায় প্রকল্পের চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়। সভায়, যেকোন প্রকল্প বাস্তবায়নে জমি অধিগ্রহণে বসতবাড়ি অন্তর্ভুক্ত করা যাবে না বলে নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ক্যান্সার আক্রান্ত হওয়া মানেই নিশ্চিত মৃত্যু সঙ্গে বিপুল পরিমাণ চিকিৎসা ব্যয় মেটাতে সর্বশান্ত হয়ে পড়ে একেকটি পরিবার। বিশ্বজুড়েই গত এক দশকে বেড়েছে ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা, কার্যকর চিকিৎসা পদ্ধতি আবিস্কার হলেও তা অনেকটাই সাধারণ মানুষের আর্থিক সক্ষমতার বাইরে।

এবার, দেশের মানুষকে কর্কট রোগের হাত থেকে বাঁচানোর সঙ্গে তাদের আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ কমাতে চায় সরকার। ২ হাজার ৩শ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রাথমিকভাবে বিভাগীয় পর্যায়ের মেডিকেল কলেজ হাসপাতালগুলোতে নির্মাণ হবে ক্যান্সার চিকিৎসা কেন্দ্র।

এছাড়াও, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে চলতি অর্থবছরের ৬ষ্ঠ একনেক সভায় চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়েছে আরো সাতটি প্রকল্পের। প্রায় নয় হাজার কোটি টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ের সব প্রকল্প বাস্তবায়নে স্বচ্ছতা নিশ্চিতের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ, কোনো ধরনের বসতবাড়ির জমি অধিগ্রহণ করা যাবে না প্রকল্পে।

সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীর ৪ দশমিক চার আট শতাংশ বাস্তবায়িত হয়েছে।