৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগের বিচার বিভাগীয় তদন্তসহ তিন দফা দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন অবরোধ করেছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (০৩সেপ্টেম্বর)সকাল সাড়ে ৭টা থেকে ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা এ কর্মসূচি পালন করছেন। এ কর্মসূচি চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ও পুরনো দুটি প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে অবরোধ করছেন তারা।

অবরোধকারীরা ভবন দুটির প্রবেশের সব ফটক বন্ধ করে দিয়েছেন। কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী ভবনে প্রবেশ করতে না পেরে বাইরে অপেক্ষা করে ফিরে গেছেন। ফলে প্রশাসনিক কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়েছে। এ ছাড়া ভিসি অফিসের সব কার্যক্রমও বন্ধ রয়েছে।

অবরোধকারীদের দাবি- বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হল ঘিরে নির্মিতব্য তিনটি ১০ তলা হলের বিকল্প স্থান নির্বাচন, বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশীজনদের মতামতের ভিত্তিতে পুরো প্রকল্প বাস্তবায়ন এবং দুর্নীতির অভিযোগের বিচার বিভাগীয় তদন্ত।

তবে অবরোধকারীরা জানিয়েছেন, দুপুর ১২টা পর্যন্ত তাদের সঙ্গে প্রশাসনের কেউ দেখা করেননি।

আন্দোলনকারী দর্শন বিভাগের অধ্যাপক রায়হান রাইন বলেন, ‘তিনটি ছাত্র হলের জন্য এমন স্থান নির্বাচন করতে হবে, যেখানে গাছ কম কাটা পড়বে। আর অধিকতর উন্নয়ন প্রকল্পের টাকা ছাত্রলীগের মধ্যে ভাগাভাগির যে অভিযোগ এসেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তা মিথ্যা দাবি করছে।

‘যেহেতু বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে কোনো উচ্চতর কমিটির মাধ্যমে এই অভিযোগের তদন্ত হতে হবে।’