৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ভারতের সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে আজ শনিবার(৩১আগস্ট) আসামের নাগরিকদের চূড়ান্ত তালিকা (এনআরসি) প্রকাশ করা হয়েছে।

তালিকায় ৩ কোটি ১১ লাখ ২১ হাজার ৪ জনের নাম রয়েছে। বাদ পড়েছে ১৯ লাখ ৬ হাজার ৬৫৭ জনের নাম।

শনিবার এ তালিকা প্রকাশ ঘিরে আসামে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

তালিকা প্রকাশের পর আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়াল জানিয়েছেন, যাদের নাম বাদ পড়েছে তাদের উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনও কারণ নেই। আগামী ১২০ দিনের মধ্যে ট্রাইব্যুনালে আবেদন জানাতে পারবেন তারা।

জাতীয় নাগরিকপঞ্জির চূড়ান্ত খসড়ায় বাদ পড়েছিল ৪১ লাখেরও বেশি মানুষ। চূড়ান্ত তালিকায় এসে বাদ পড়েছে ১৯ লাখ মানুষের নাম। নাগরিকপঞ্জিতে আবেদনকারীর মোটসংখ্যা ছিল ৩ কোটি ৩০ লাখ ২৭ হাজার ৬৬১ জন।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, তালিকা থেকে বাদ পড়াদের অভিযোগ শুনতে গঠন করা হবে এক হাজার ট্রাইব্যুনাল। অবশ্য ইতিমধ্যেই ১০০ ট্রাইব্যুনাল কাজ শুরু করে দিয়েছে। সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে আরও ২০০ ট্রাইব্যুনাল কাজ শুরু করে দেবে। কেউ ট্রাইব্যুনালে হেরে গেলে হাইকোর্ট ও সুপ্রিমকোর্টে যেতে পারেন। কাউকে ডিটেনশন ক্যাম্পে রাখা হবে না।

প্রসঙ্গত, ভারতের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধী এবং আসামগণ পরিষদের মধ্যে হওয়া চুক্তি অনুযায়ী ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চের পর যারাই অসামে এসেছে তারা সকলেই অনুপ্রবেশকারী তথা বেআইনি নাগরিক– এ মর্মেই এনআরসি তৈরি করতে হবে। এত বছর পর সেই প্রক্রিয়াই বাস্তবায়ন হচ্ছে।