৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

চট্টগ্রাম ওয়াসা কর্তৃক পানির মূল্য বৃদ্ধির প্রস্তাবের প্রতিবাদে এবং এ প্রস্তাব সরকার  গ্রহণ না করার দাবিতে সোমবার (২৬ আগস্ট) বেলা ১০ টায় চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে এক গণজমায়েত অনুষ্ঠিত হয়।

প্রধানঅতিথির বক্তব্য রাখছেন গণঅধিকার চর্চা কেন্দ্রের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক ডা. মাহফুজুর রহমান।

সভায় বক্তারা বলেন, চট্টগ্রাম ওয়াসা গত সাত বছরে ৭বার পানির দাম বাড়িয়েছে। মাত্র ৬ মাস আগেও ওয়াসা পানির দাম বাড়িয়েছে। ওয়াসা আইন অনুযায়ী ওয়াসা বছরে ১ বার মাত্র ৫ শতাংশ হারে পানির দাম বাড়াতে পারে। আর  মুদাস্ফীতি জনিত কারণে বা প্রয়োজনে ওয়াসা পানির দাম বাড়াতে পারে। এ সুযোগ নিয়ে ওয়াসা পানির দাম ৬২% বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে- যা চট্টগ্রাম শহরের ৬০ লাখ অধিবাসীকে ভোগান্তিতে ফেলবে এবং সরকারকে জনপ্রিয়তার দিক থেকে বিপাকে ফেলবে। বক্তারা বলেন, ওয়াসার সেবার মান নীচু, শুধু তাই নয় খুড়াখুড়ির পর মাটি রাস্তায় ফেলে চট্টগ্রামকে বালি উড়ার শহরে পরিণত করেছে-যা চট্টগ্রাম বাসীকে মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ফেলছে। সেবারমান উন্নত না করে ক্ষমতার অপব্যবহার করে এ দাম বৃদ্ধি যেমন অগ্রহণযোগ্য তেমনি বেআইনী। বক্তারা সরকার প্রধানকে ওয়াসার এ প্রস্তাব গ্রহণ না করে পানির দাম পূর্বের মত রাখার দাবি জানান এবং জনগণকে ভোগান্তির হাত থেকে মুক্ত রাখার আহ্বান জানান। সভা শেষে মিছিল সহকারে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে এসব বক্তব্য সম্বলিত স্মারকলিপি দেয়া হয়। সংগঠনের চট্টগ্রাম শাখার যুগ্নআহ্বায়ক শাহজাহান চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক ডা. মাহফুজুর রহমান। বক্তব্য রাখেন সিদ্দিকুল ইসলাম, গণমুক্তি ইউনিয়নের রাজা মিয়া, সাংষ্কৃতিক কর্মী দেওয়ান মাকসুদ আহমদ, সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক সলমান খান, সুশময় চৌধুরী, গণঅধিকার ফোরামের মহাসচিব এমএ হাশেম রাজু, সংগঠনের সদস্য সচিব মশিউর রহমান খান, জাসদ নেতা সেলিম চৌধুরী, শহীদুল ইসলাম রিপন, জানে আলম, আলমগীর রুমি, জয়নুদ্দিন জয়, বেলাল হোসেন,সাহিদা আকতার জোনাকী, জান্নাতুল ফেরদৌস , সিদরাতুল মুনতাহা জবা প্রমুখ।

আর পড়ুন:   দুর্নীতি থেকে দেশকে মুক্ত করতে হবে-প্রধানমন্ত্রী