৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের ব্যর্থতার কারণেই সারাদেশে ডেঙ্গু ছড়িয়ে পড়েছে। কর্তৃপক্ষের দক্ষতা ও মানসিকতার অভাবেই পরিস্থিতি এমন হয়েছে। ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসা নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিবেদন দেখে এভাবেই অসন্তোষ জানান হাইকোর্ট।

এদিকে শনিবার সকাল আটটা থেকে রবিবার সকাল আটটা পর্যন্ত সারাদেশে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন ১ হাজার ৭০৬ জন। এরইমধ্যে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৫০ হাজার ছাড়িয়েছে।

ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসার ব্যপারে সরকারের নেয়া পদক্ষেপ সম্পর্কে হাইকোর্টে প্রতিবেদন দাখিল করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। তবে ঐ প্রতিবেদনে সন্তুষ্ট হতে পারেনি আদালত।

আদালত বলেন, ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবেলায় ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়নি বলেই ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণ করা যায়নি।

মশার স্প্রে বা কয়েল প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলো মশা নির্মূল চায় না বলেও মন্তব্য করেন হাইকোর্ট। এছাড়া মৃতের সংখ্যা নিয়ে সরকারি ও বেসরকারি হিসাবের ফারাক প্রসঙ্গেও প্রশ্ন তুলেন আদালত।

ডেঙ্গু মোকাবেলায় সংস্থাগুলোকে আরও আন্তরিক হওয়ার তাগিদ দেন হাইকোর্ট।

চলতি মৌসুমে সারাদেশে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৫০ হাজার ছাড়িয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে রবিবার সকাল আটটা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ১৭০৬ জন হাসপাতালে ভর্তি হন। অবনতি হয়েছে দেশের বিভিন্ন জেলার পরিস্থিতিরও ।