৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কোরবান উপলক্ষে চট্টগ্রামে নগরের প্রত্যেকটি পশুর হাট ড্রোন ক্যামেরা দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করা হবে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কমিশনার মো. মাহবুবর রহমান। হাটে আসা কোরবানির পশুবাহী ট্রাক তল্লাশির আওতামুক্ত থাকবে বলেও জানান তিনি।

শনিবার (৩ আগস্ট) দুপুরে নগরের দামপাড়া পুলিশ লাইন্সের সম্মেলন কক্ষে আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে কোরবানির পশুর হাটের নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত সভায় সিএমপি কমিশনার এসব কথা বলেন।

মো. মাহবুবর রহমান বলেন, ঈদ উপলক্ষে নগরে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। প্রত্যেকটি হাটে থাকবে পুলিশের কন্ট্রোল রুম ও ওয়াচ টাওয়ার। জাল নোট শনাক্তকরণের মেশিন বসানোর পাশাপাশি মানি এস্কর্ট সুবিধাও থাকবে। বাস ও লঞ্চ টার্মিনাল এবং রেলস্টেশন কেন্দ্রীক নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করা হবে।

তিনি বলেন, প্রতিবার কোরবানির পশুবাহী ট্রাক থেকে চাঁদাবাজির অভিযোগ আসে। এ জন্য এবার কোনো পশুবাহী ট্রাক পুলিশ চেকিং করবে না। পশুবাহী ট্রাক যেখানে যেতে চায়, তাকে সেখানে যেতে দেওয়া হবে। কোনো অবস্থায় বাধা দেওয়া যাবে না। যে কোনো সংস্থার চাঁদাবাজি থেকে পশুবাহী ট্রাককে রক্ষা করা হবে। পশুর হাটে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ড্রোন ক্যামেরা দিয়ে পুরো হাট নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

ঈদ উপলক্ষে ছিনতাইকারী ও মলমপার্টির দিকে বিশেষ নজর দেয়া হচ্ছে জানিয়ে সিএমপি কমিশনার বলেন, ছিনতাইকারী ও মলমপার্টির দিকে বিশেষ নজর থাকছে এবার। যারা জামিনে মুক্ত হয়েছে তাদেরকেও নজরে রাখা হয়েছে।

কয়েকটি জায়গায় সড়কের পাশে সিটি করপোরেশন পশুর হাট বসানোর অনুমতি দেয়াকে দুঃখজনক মন্তব্য করে মো. মাহবুবর রহমান বলেন, আমাদের প্রস্তাব ছিলো যানজট রোধে কোনো অবস্থায় সড়কের পাশে পশুর হাট যেন না থাকে। কিন্তু কয়েক জায়গায় সিটি করপোরেশন সড়কের পাশে হাট বসানোর অনুমতি দিয়েছে। এটি দুঃখজনক।